বৃহস্পতিবার, জুলাই ২০, ২০১৭


Find us on

দুর্ঘটনায় মৃত্যু ইসলামপুর বিডিও অফিসের দুই কর্মী সহ তিনজনের

ইসলামপুর, ২৯ মেঃ রবিবার রাতে ইসলামপুরের রামগঞ্জে ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনায় ইসলামপুর বিডিও অফিয়ের দুই কর্মী সহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে রয়েছেন ইসলামপুর বিডিও অফিসের ক্যাশিয়ার আশিস চন্দ (৩২) ও গাড়ির চালক স্বপন মুর্মু (৩২)। মৃত তৃতীয় ব্যক্তি হলেন স্থানীয় ঠিকাদার সঞ্জয় মুন্সী (৩৮)। দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন বিডিও অফিয়ের সমিতি এডুকেশন অফিসার (এসইও) উজ্জ্বল কুরি। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রাত আটটা নাগাদ দুর্ঘটনার পরই হতাহতদের প্রথমে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। খবর পেয়ে হাসপাতালে পৌঁছান ইসলামপুরের মহকুমাশাসক ওয়াই শেরিং ভুটিয়া ও বিডিও রাজু মণ্ডল। মহকুমাশাসককে বিডিও জানান, অফিসের কর্মীরা তাঁকে কিছু না জানিয়েই ছুটির দিনে সরকারি গাড়ি নিয়ে বেরিয়েছিলেন। তাঁরা কোথায়, কী কাজে গিয়েছিলেন তা তাঁর জানা নেই।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, চোপড়ার একটি হোটেলে খাওয়াদাওয়া করে তীব্রগতিতে ইসলামপুরে ফিরছিল বিডিও অফিসের গাড়িটি। রামগঞ্জে একটি ট্রাক পিছন থেকে গাড়িটিকে ধাক্কা মারে। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি সামনে থাকা বালি বোঝাই একটি লরির নীচে ঢুকে আটকে যায়। পিছনে আসা ট্রাকটি আবার ধাক্কা মারায় দুটি লরির মধ্যে পিষে যায় গাড়িটি। প্রচণ্ড ধাক্কায় রাস্তায় ছিটকে পড়েন ক্যাশিয়ার এবং এসইও। স্থানীয় জনতাই তাঁদের উদ্ধার করে ইসলামপুর হাসপাতালে নিয়ে আসেন। আশিসবাবুকে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। উজ্জ্বলবাবুকে মেডিকেলে রেফার করা হয়। পরে গাড়ির চালক ও ঠিকাদারের দেহ ইসলামপুর হাসপাতালে আনা হয়।

প্রশ্ন উঠেছে, ছুটির দিনে বিডিও-কে না জানিয়ে একজন ঠিকাদারকে নিয়ে সরকারি কর্মীরা অফিসের গাড়ি নিয়ে কোথায় গিয়েছিলেন ? মহকুমাশাসক বলেন, মর্মান্তিক ঘটনা। এসইও-কে সুস্থ করে তোলার চেষ্টা চলছে। তবে, সরকারি কাজ ছাড়া বিডিও অফিসের কর্মীরা কেন বেরিয়েছিলেন, তা তদন্ত করে দেখা হবে।