Find us on

অশ্লীল ছবি নিয়ে উত্ত্যক্ত ছাত্রীকে, অভিযুক্ত তৃণমূল ছাত্রনেতা
উত্তরবঙ্গ
দক্ষিণ দিনাজপুর

বালুরঘাট, ২১ জুলাইঃ এক কলেজ ছাত্রীর অশ্লীল ছবি ভাইরাল হওয়া নিয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতাদের মারামারির ঘটনায় তদন্ত শুরু করল জেলা পুলিশ। কলেজের ছাত্র সংসদের ক্রীড়া সম্পাদক শুভম মুখোপাধ্যায় থানায় প্রতিবাদ করায় এক ক্লাস রিপ্রেজেনটেটিভ ও তার সঙ্গীরা তাঁকে মারধর করে বলে অভিযোগ। শুভম মুখোপাধ্যায় ও এক ছাত্রী বালুরঘাট মহিলা থানায় অভিযোগ জানানোর পর পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বালুরঘাট কলেজের প্রথমবর্ষের এক ছাত্রীর নগ্ন ছবি ভাইরাল হয়ে যায়। কলেজের তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নির্বাচিত এক সদস্যের বিরুদ্ধে ওই ছবি নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে মস্করা করার অভিযোগ ওঠে। অভিযোগ, ওই ছাত্রী ও তাঁর বান্ধবীদের দেখিয়ে দেখিয়ে ক্লাস রিপ্রেজেনটেটিভ মণি দাস তাঁদের উত্ত্যক্ত করছিল। এরই প্রতিবাদ করতে এগিয়ে আসেন কলেজের ক্রীড়া সম্পাদক তথা তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা শুভম মুখোপাধ্যায় ও তাঁর বন্ধুরা।

শুভমের অভিযোগ, মণি দাস ও তার দলবল ওই আপত্তি তো শোনেইনি, উলটে কলেজের একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে তাঁদের বেধড়ক মারধর করে। এমনকি ওই ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করে দেওয়ারও হুমকি দেওয়া হয়। এই ঘটনার পরেই ওই ছাত্রী ও শুভম পৃথক পৃথকভাবে কলেজের অধ্যক্ষ ও বালুরঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এদিন ঘটনার তদন্তে নামে পুলিশ।

ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক বিক্রম রায় বলেন, ‘এমন ঘটনা কাম্য নয়। আমরা ছাত্র সংসদের সভায় তুলব বিষয়টি।’

কলেজের অধ্যক্ষ প্রশান্তকুমার ধারই বলেন, ‘মণি দাস নামে এক ছাত্রের বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রছাত্রী অভিযোগ জানিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে পরিচালন সমিতিতে আলোচনা হবে।’

অভিযুক্ত ছাত্রনেতা মণি দাস বলেন, ‘ওই ছাত্রীর ছবি ভাইরালের বিপক্ষে আমরাও। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে।’

পুলিশ সুপার প্রসুন বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ওই ছাত্রদের কর্মকাণ্ড কোনোভাবেই সমর্থন যোগ্য নয়। ছাত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা শুরু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *