Find us on

জেনে নিন কলার খোসার বিভিন্ন উপকারিতা
জীবনযাপন

উত্তরবঙ্গ সংবাদ পোর্টালঃ কলার নানা পুষ্টিগুণের কথা সবাই জানেন, কিন্তু কলার খোসা কি কোনো কাজে লাগে? কলা খেয়ে খোসাটা ফেলে দিলেও তা আসলে ফেলনা জিনিস নয়। অনেক কাজে লাগাতে পারেন ফেলে দেওয়া কলার খোসাকে। আসুন জেনে নিই কলার খোসার ব্যাবহার-

১. ব্রণ দূর করতে: ছোট ছোট ব্রণকে তাত্‍ক্ষণিকভাবে দূর করতে সাহায্য করবে কলার খোসা। কলার খোসার ভেতরের অংশটি দিয়ে ব্রণের ওপর ঘষতে থাকুন। কিছুক্ষণ পর দেখবেন ব্রণ কোথায় মিলিয়ে গেছে।

২. পোকামাকড়ের কামড়: মশা বা পোকামাকড়ের কামড়ের ফলে ত্বকে এক ধরনে জ্বলুনি বা চুলকানি হয়। কলার খোসার ভেতরের দিকটা আক্রান্ত স্থানে ঘষুন। দেখবেন জ্বলুনি বা চুলকানি একদম কমে গেছে।

৩. দাঁত সাদা করতে: কলার খোসার ভেতরের অংশ দাঁতে ঘষতে থাকুন ২ মিনিট ধরে। ৫ মিনিট অপেক্ষা করে এরপর নিয়মিত টুথপেস্ট দিয়ে দাঁত মেজে ফেলুন। মাত্র ৭ দিনেই দাঁত হয়ে উঠবে ঝকঝকে সাদা।

৪. জুতা চকচকে করে তুলতে: শু-পলিশের পরিবর্তে ব্যবহার করতে পারেন কলার খোসা। প্রথমে জুতায় ময়লা লেগে থাকলে তা পরিষ্কার করে নিন। এবার পাকা কলার খোসার ভেতরের অংশটা দিয়ে জুতা ওপরে ঘষুন অন্তত ৫ মিনিট। দেখবেন চকচকে হয়ে উঠতে শুরু করেছে জুতা। এবার একটি পাতলা পরিষ্কার কাপড় দিয়ে জুতা জোড়া ভালো করে মুছে নিন।

৫. স্ক্র্যাচ দূর করতে: সিডি বা ডিভিডিতে কিছুদিনের মধ্যেই স্ক্র্যাচ পড়ে নষ্ট হয়ে যায়। সিডি চলতে চায় না, ডিভিডির ভিডিও আটকে আটকে যায়। এ সমস্যা সমাধান করতে কলার খোসার ভেতরের অংশটি দিয়ে সিডি বা ডিভিডিটি ভালো করে ঘষে নিন। দেখবেন স্ক্র্যাচ একেবারেই চলে গিয়েছে।

৬. মসৃণ ত্বকের জন্য: মুখমণ্ডল যদি শুষ্ক আর খসখসে হয়, কলার খোসার ভেতরের অংশ মুখে লাগিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। তারপর ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন ত্বক মসৃণ ও মোলায়েম হয়ে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *