Find us on

বিয়েতে অসম্মতি পাত্রীর, আত্মঘাতী পাত্র
উত্তরবঙ্গ
শিরোনাম

রায়গঞ্জ, ১২ সেপ্টেম্বরঃ বিয়ের দিনক্ষণ স্থির হওয়ার পর আচমকাই পাত্রকে না পসন্দ পাত্রীর। এই ধাক্কা সামলাতে না পেরে মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকে পাত্র। অবশেষে আজ ভোরে মায়ের শাড়ী দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে পাত্র। রায়গঞ্জের দেবীনগর এলাকার ঘটনা।

জানা গিয়েছে, মৃতের নাম দিবাকর বর্মন। প্রাইভেট ফার্মের কর্মী ছিল সে। বালুরঘাটের পাত্রীর সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়েছিল রায়গঞ্জের দিবাকর বর্মনের। দাবিদাওয়া কিছু না থাকলেও শুধুমাত্র যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বিয়ে করার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিল পাত্রপক্ষ। কিন্তু পাত্রীপক্ষের তরফে অনুষ্ঠান করে বিয়ে দেওয়ার জন্য কিছুদিন সময় চেয়ে সর্বসম্মতিক্রমে আগামী অগ্রহায়ন মাসে বিয়ের দিন ধার্য করা হয়েছিল।

জানা গিয়েছে, বিয়ের আরও কিছুদিন বাকি থাকায় পাত্র-পাত্রীর মধ্যে ফোনে শুরু হয় বার্তালাপ। ধীরে ধীরে তা প্রেমে পরিণত হয় বলেও জানা যায়। কিন্তু আচমকাই বেঁকে বসে পাত্রী। দিবাকরকে বিয়ে করবেনা বলেও জানায় সে। দুই পরিবারের তরফে বুঝিয়ে পাত্রীকে বিয়েতে রাজী করানো হলেও কিছুদিন যেতে না যেতেই ফের পাত্রী অসম্মতি জানায় বিয়েতে। এরপরই মানসিক অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়ে দিবাকর। এর জেরেই আত্মহননের পথ বেছে নেয় বলে জানায় দিবাকরের পরিবার। ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালে পাঠায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *