শনিবার, জানুয়ারি ২১, ২০১৭


Find us on

জলপাইগুড়ি

মিড-ডে মিলের জন্য নানা উপকরণ দিচ্ছে প্রশাসন

নাগরাকাটা, ২ ডিসেম্বরঃ মিড-ডে মিল প্রকল্পের জন্য এলাকার স্কুলগুলিকে নানা উপকরণ দিচ্ছে নাগরাকাটা ব্লক প্রশাসন। পড়ুয়াদের জল খাবার গ্লাস, চাল রাখার স্টিলের ড্রাম, রাঁধুনিদের অ্যাপ্রন, ক্যাপ ও গ্লাভস দেওয়া হচ্ছে। যে সব স্কুলে রানিং ওয়াটারের ব্যবস্থা নেই সেখানে ছাত্রছাত্রীদের খাওয়ার আগে সাবান দিয়ে হাত ধোওয়ার ব্যবস্থাও করে দেওয়া হচ্ছে। এক সঙ্গে এত উপকরণ পেয়ে দারুণ খুশি বিভিন্ন স্কুল কর্তৃপক্ষ।

Read More

চিটফান্ড এজেন্টের বিরুদ্ধে মামলা করে টাকা ফেরত পেলেন আমানতকারী

জলপাইগুড়ি, ২ ডিসেম্বরঃ এক চিটফান্ড এজেন্টের বিরুদ্ধে ক্রেতা সুরক্ষা আদালতে মামলা করে টাকা ফেরত পেলেন এক আমানতকারী। কোনো চিটফান্ড সংস্থার এজেন্টের বিরুদ্ধে মামলা করে টাকা ফেরত পাওয়ার ঘটনা অভূতপূর্ব বলেই মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল। চিটফান্ড সংস্থাটির নাম আইকোর। সূত্রের খবর, ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা, রোমান দাস, আইকোর চিটফান্ডের এজেন্ট কিশোর মুস্তাফির কাছে ৮৬৭৫ টাকা গচ্ছিত রেখেছিলেন। কিন্তু বহুবার তাগিদ সত্ত্বেও টাকা ফেরত না মেলায় গতবছর ২৭ জুলাই ক্রেতা সুরক্ষা আদালতে মামলা দায়ের করেন রোমান বাবু। তারপর থেকে কিশোর মুস্তাফির নামে সমন এলেও তিনি আদালতে কোনোদিন হাজির হননি। অবশেষে তাকে গ্রেপ্তার করা হলে আদালতের মধ্যেই সকলের সামনে রোমান বাবুকে ৫৬০৯ টাকা দিতে বাধ্য হন।

Read More

ডাকঘরে টাকা না থাকায় বিয়ের বাজার আটকে দুই পরিবারের

ধূপগুড়ি, ২ ডিসেম্বরঃ হাতে মাত্র কয়েকদিন। কিন্তু টাকা না থাকায় ডাকঘরের সামনে প্রতিদিন লাইন দিয়েও মিলছে না পর্যাপ্ত টাকা। ফলে বিয়ের বাজার অসম্পূর্ণ। এই অভিযোগ ধূপগুড়ির ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের দুটি পরিবারের।

শুক্রবার ধূপগুড়ি ডাকঘরে পর্যাপ্ত টাকার অভাবে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা গ্রাহকদের মাত্র ৫০০ টাকা করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করায় গ্রাহক ও ব্যংক কর্মীদের মধ্যে বচসা বাঁধে। ধূপগুড়ি থানার পুলিশের মধ্যস্থতায় বচসা মিটে গেলেও সমস্যার সমাধান হয়নি। অভিযোগ, বিয়ের জন্য টাকা ডাকঘরে সঞ্চিত থাকলেও তা টাকার অভাবে ডাকঘর কর্তৃপক্ষ দিতে পারছে না। ডাকঘর সূত্রের খবর, বাড়িতে বিয়ে আছে এমন পরিবারগুলোকে কিছু টাকা দিতে পারলেও পুরো টাকা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা বাসন্তী সাহা তাঁর ভাইঝির বিয়ের জন্য আবেদন করেছিলেন ১,২৯,০০০ টাকার। কিন্তু মাত্র ৩২০০০ টাকা পেয়েছেন তিনি। অন্যদিকে, বারোঘরিয়া এলাকার বাসিন্দা বীণা মন্ডল ৯৯,০২৫ টাকার আবেদন করেছিলেন মেয়ের বিয়ের জন্য । কিন্তু এখনও মেলেনি কিছুই।

Read More

মৌমাছির আতঙ্কে টাকিমারি বাজারে আঘোষিত বনধ

রাজগঞ্জ, ২ ডিসেম্বরঃ মৌমাছির আতঙ্কে প্রায় কয়েকদিন ধরে অঘোষিত বনধ চলছে রাজগঞ্জ ব্লকের টাকিমারি বাজারে। সেখানকার অধিকাংশ দোকানগুলির বারান্দায় মৌমাছিরা মৌচাক বানানোয় এই বিপত্তি। রীতিমতো আতঙ্ক বিরাজ করছে মান্তাদারি গ্রামপঞ্চায়েতের তিস্তার চরের টাকিমারি বাজারে। মৌমাছির কামড় খেয়েছে স্কুল পড়ুয়া থেকে গ্রাহক ও দোকানদাররা।

Read More

প্রবীণ সাংবাদিক প্রয়াত

জলপাইগুড়ি, ৩০ নভেম্বরঃ জলপাইগুড়ির সাপ্তাহিক পত্রিকা জনমত-এর প্রবীণ সাংবাদিক তথা জলপাইগুড়ির প্রাক্তন কৃতি ক্রিকেট খেলোয়াড় সমীর বসু ঠাকুর মারা গেলেন। বুধবার সকাল ৬ টায় শহরের বাবুপাড়ার একটি নার্সিংহোমে সমীরবাবু শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। এদিন সমীরবাবুর মৃতদেহ রবীন্দ্র ভবনে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁর শেষ কৃত্য মাসকালাইবাড়ি শশ্মানে সম্পন্ন হয়। নিঃসন্তান সমীরবাবুর স্ত্রী বর্তমান। তাঁর প্রয়াণে জলপাইগুড়ি শহরে শোকের ছায়া নেমে আসে।

Read More

ডিজিটাল র‍্যাশনকার্ড ইশ্যুতে কংগ্রেসের স্মারকলিপি পেশ

জলপাইগুড়ি, ৩০ নভেম্বরঃ ভুলে ভরা ডিজিটাল র‍্যাশনকার্ড দ্রুত সংশোধন করে সাদারন মালুষের হাতে তুলে দেওয়ার দাবি জানালো জলপাইগুড়ি ব্লক কংগ্রেস কমিটি। বুধবার এই মর্মে আট দফা দবি নিয়ে জেলা খাদ্য নিয়ামককে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে কমিটির পক্ষ থেকে। শহর ব্লক কংগ্রেস কমিটির সভাপতি পিনাকী সেনগুপ্তের অভিযোগ, প্রায় ৯৯ শতাংশ ডিজিটাল র‍্যাশনকার্ডে নাম,পদবী, ঠিকানায় প্রচুর ভুল রয়েছে। তিনি বলেন,‘আগে যারা অন্ত্যোদয় অন্নপূর্ণা যোজনার আওতায় ছিলেন, নতুন ডিজিটাল কার্ডে তারা রাষ্ট্রীয় খাদ্য সুরক্ষা যোজনার আওতায় চলে আসছেন। আবার বেশ কিছু উচ্চবিত্ত পরিবারও এই একই যোজনার আওতায় চলে আসছেন।’ পিনাকী বাবুর দাবি, ‘ভুল কেন হয়েছে তার জবাব অবশ্যই দিতে হবে সংশ্লষ্ট দপ্তরকে। দ্রুত র‍্যাশনকার্ডের ভুল সংশোধন করে বুথ ভিত্তিক ক্যাম্পের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছে তা পৌঁছে দিতে হবে।’

Read More

হোমের আবাসিকদের পিকনিক

জলপাইগুড়ি, ২৯ নভেম্বরঃ তিস্তা পাড়ে আয়োজিত হল মরশুমের প্রথম পিকনিক। পিকনিক পার্টির সদস্যরা জলপাইগুড়ির কোরক হোমের আবাসিক। পিকনিকে পরিবেশ সচেতনতা নিয়ে প্রচারের পাশাপাশি নদীর চরে বালু ভাস্কর্য তৈরি করল হোমের আবাসিক কানাই সেনগুপ্ত, ভগীরথ বর্মন, রাজ মুন্না, সুরেশ দেববাহাদুর, শংকর ভট্টরা। এদিন খাওয়াদাওয়ার পাশাপাশি চলে নাচগানও। মঙ্গলবার এই পিকনিকে শামিল হয়েছিলেন ৯২ জন আবাসিক।

Read More

নিয়োগের ভুয়ো খবরে চাঞ্চল্য জলপাইগুড়িতে

জলপাইগুড়ি, ২৯ নভেম্বরঃ খাদ্য দপ্তরের গোডাউনগুলির নিরাপত্তা রক্ষার কাজে সিভিক ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করা হবে। কোনো একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এই খবর ছড়িয়ে পড়ে জলপাইগুড়ি জেলার বিভিন্ন জায়গায়। এই ভুয়ো খবরের ভিত্তিতে একাধিকবার যুবক-যুবতি চাকরির আবেদনপত্র পূরণের উদ্দেশ্যে মঙ্গলবার ভিড় জমান জলপাইগুড়ির প্রধান ডাকঘরে। চাকরিপ্রার্থীরা সেই আবেদনপত্র তাঁরা পাঠিয়েছেন জেলার পুলিশ সুপারের উদ্দেশ্যে। এদিকে পুলিশ সুপার, জেলা খাদ্য দপ্তরের কর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গিয়েছে, এধরনের কোনো বিজ্ঞপ্তির কথা তাঁরা জানেনই না। পুলিশ সুপার অমিতাভ মাইতি জানিয়েছেন, এই ভুয়ো বিজ্ঞপ্তির ব্যপারে যত দ্রুত সম্ভব মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু হবে। এদিকে, ওই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্য যে ভিত্তিহীন সে বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতে মঙ্গলবার বিকেল থেকেই প্রচারাভিযান শুরু করেছে কোতোয়ালি থানার পুলিশ।

Read More

নিবেদিতা আলোচনা সভা

মালবাজার, ২৯ নভেম্বরঃ মঙ্গলবার পরিমল মিত্র স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ে `ভারতীয় নারী ও নিবেদিতা’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভাটি কলেজের বাংলা ও দর্শন বিভাগ যৌথভাবে আয়োজন করে। এই সভায় বেলুড়ের রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের স্বামী চন্দ্রকান্তনন্দ, কলেজের অধ্যক্ষা ডঃ উমা মাজী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। স্বামী চন্দ্রকান্তনন্দ বলেন, `ভগিনী নিবেদিতা ভারতীয় নারীদের আদর্শ বিভিন্ন মহলে তুলে ধরেছেন। নিবেদিতার মতো মহান নারীরা সকলের কাছেই অনুপ্রেরণা।’ মহাবিদ্যালয়ের দুই বিভাগীয় প্রধান বলেন, `ভগিনী নিবেদিতার জন্ম সার্ধশতবর্ষ পালনের অঙ্গ হিসেবে এদিন আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছিল।’

Read More

ন্যায্য মূল্যের আলুর বীজ বিক্রি

ধূপগুড়ি, ২৮ নভেম্বরঃ প্রতি বছরের মতো এবারও কৃষকদের জন্য ন্যায্য মূল্যে আলু বীজ বিক্রি শুরু করল রাজ্য বীজ নিগম ও কৃষি বিভাগ। সোমবার থেকে ধূপগুড়ি ব্লকের কিষান মান্ডিতে ক্রয় কেন্দ্র খুলে বীজ বিক্রি শুরু হয়েছে। ব্লকের সহ কৃষি অধিকর্তা দেবাশিস সর্দার বলেন, ‘ইতিমধ্যেই ১০৩ টন আলু বীজ ব্লকে চলে এসেছে। এই বীজ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কৃষি বিশেষজ্ঞদের দ্বারা সার্টিফায়েড।’

Read More