শনিবার, জানুয়ারি ২১, ২০১৭


Find us on

জীবনযাপন

পেডিকিওর ছাড়াই শীতকালেও মিলবে পেলব পা

শীতকালের রুক্ষতা আমাদের ত্বকের জেল্লাই কেড়ে নেয়। সবচেয়ে রুক্ষ হয় আমাদের হাত ও পায়ের ত্বক। কিন্তু যদি পাওয়া যায় ঘরোয়া উপায়ে মুশকিল আসানের কিছু উপায়? জেনে নিন কীভাবে-

১) পায়ের ত্বক রুক্ষ হয়ে পড়েছে? সাবানের বদলে ঈষদুষ্ণ জলে পাতিলেবুর রস মিশিয়ে পা পরিষ্কার করুন। চামড়া নরম থাকবে।

 ২) সপ্তাহে একদিন স্নানের সময় ঝামা দিয়ে পা ঘষে নিন। মরা কোষ পরিষ্কার হবে, গোড়ালিও ফাটবে কম।

Read More

জলপাই খেলে চোখ ভলো থাকবে

জলপাই শুধু খেতেই সুস্বাদু নয়। নিয়মিত জলপাই খেলে শরীরের প্রচুর উপকার। আর জলপাই তো এখন আর দুর্লভ নয়। কারণ শীত এসে পড়ল। বাজারে ইতিমধ্যেই উঠতে শুরু করেছে জলপাই।

ক্যানসার প্রতিরোধে জলপাই ভালো কাজ করে। জলপাইয়ে আছে মোনো-স্যাচুরেটেড ফ্যাট। জলপাইয়ের ভিটামিন-ই কোষের অস্বাভাবিক গঠনে বাধা দেয়। ফলে ক্যানসার হওয়ার ঝুঁকি কমে।

Read More

শীতের চুলচর্চায় বাঁচবে চুল

শীত আসতে না আসতেই মুখ বেজাড়। শুরু ত্বক ও চুলের সমস্যা। কিন্তু হাতের কাছেই যদি থাকে চটজলদি ঘরোয়া সমাধান? জেনে নিন কীভাবে-

১) খুশকি কমাতে রোজ তিন টেবিল চামচ নুন স্ক্যাল্পে ঘষুন মিনিট পাঁচেক। তারপর শ্যাম্পু করে নিন।

২) আধকাপ জল ও আধকাপ ভিনিগার মিশিয়ে নিন। মাথায় ঘষে ঘষে লাগান। মিশ্রণ লাগানোর বেশ খানিকক্ষন পরে শ্যাম্পু করবেন।

Read More

মাইক্রোওয়েভ ওভেনে গরম করা খাবার কি সত্যিই নিরাপদ?

হ্যাঁ নিরাপদ। দিনের পর দিন মাইক্রোওয়েভ ওভেনে গরম করা খাবার খেলে কোনও অসুবিধা হবার কথা নয়। আসলে সমস্যা তৈরি করে যে-প্লাস্টিকের পাত্রে খাবার গরম করা হয়, সেই প্লাস্টিক। এতে করে নিজের অজান্তে শরীরের ক্ষতি হয়ে যায়। তবে মনে রাখবেন ক্ষতিটা কিন্তু ওভেন কখনওই করে না।

কিন্তু কিভাবে প্লাস্টিকের পাত্র ক্ষতি করে? বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, খুব পাতলা প্লাস্টিকের পাত্রে খাবার গরম করা মোটেও নিরাপদ নয়। গরম করলে এই পাতলা প্লাস্টিক থেকে বিপিএ ক্ষরিত হয়। এগুলোই খাবারের সঙ্গে মিশে গিয়ে শরীরে চলে গেলে খুবই ক্ষতি। এগুলি শরীরে টক্সিন তৈরি করে। তবে অদ্ভুদ বিষয় হল, এই বিপিএ খুব বেশি পরিমাণ ক্ষরিত হলে কিন্তু শরীরে অসুবিধা হয় না। কম পরিমাণ হলেই ক্ষতি। কাজেই দেখা যাচ্ছে মোটা প্লাস্টিকের পাত্রে খাবার গরম করাই অনেক বেশি নিরাপদ। মোটা প্লাস্টিকের পাত্রে খাবার গরম করলে বেশি পরিমাণ বিপিএ ক্ষরিত হবে। এতে শরীরের ক্ষতি হবে না।

Read More