শুক্রবার, জুলাই ২৮, ২০১৭


Find us on

ডুয়ার্সে সক্রিয় তোতা পাচার চক্র

ধূপগুড়ি, ১৩ জুলাইঃ ফের ডুয়ার্সে সক্রিয় তোতা পাখি পাচার চক্র। খাঁচা বন্দী অবস্থায় দেদার বিকোচ্ছে টিয়া ও ময়না। তবে এই চক্র সন্ধানে বনবিভাগের কর্মীদের কোনো হেলদোল নেই বলে অভিযোগ উঠছে। আঙুল উঠছে ডুয়ার্সের বনবস্তি এলাকার কিছু অসাধু মানুষদের প্রতি।

বৃহস্পতিবার ধূপগুড়িতে এক ব্যক্তির হাতে খাঁচা বন্দী ছোট্ট একটি টিয়া পাখির ছানা দেখতে পাওয়া যায়। অভিযোগ, লোকালয়েও টিয়া পাখিকে পোষ্য হিসেবেই লালন করা হচ্ছে।

এদিন খাঁচাবন্দি টিয়া হাতে ওই ব্যক্তিকে টিয়া পাখি সম্পর্ক জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, খাঁচা সহ টিয়া পাখিটিকে কিনতে ১০০০ টাকা লেগেছে। বাড়িতে পোষার জন্যেই টিয়া পাখিটিকে আনা হয়েছে। বিশ্বস্ত সূত্রের খবর, এই চক্রের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা খুব সতর্কভাবে টিয়া গুলিকে জঙ্গল থেকে নিয়ে এসে বিক্রি করে। যথেষ্ট সতর্কতা সহ অবৈধভাবে বন্য টিয়া নিয়ে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। জানা গিয়েছে, মূলত ধূপগুড়ি ব্লকের দুরামারি ও ডুয়ার্সের বেশ কিছু অঞ্চলে এই চক্র অতি সক্রিয়। জঙ্গলে জ্বালানী সংগ্রহ করার নামে গাছের কোঠর থেকে ছোট্ট ছানাগুলিকে নামিয়ে অবাধে চলছে ব্যবসা।

ডুয়ার্সের মরাঘাট রেঞ্জের রেঞ্জার অজয় ঘোষ বলেন, কেউ বাড়িতে বন্য টিয়া পুষছে তা খবর পেয়ে অভিযান চালানো যেতে পারে। কিন্তু হঠাৎ করে কারো বাড়িতে ঢুকে অভিযান চালানো যায় না। তবে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা হবে।