Find us on

নাটকীয় মোড়, উদ্ধার হওয়া প্যাকেটে নেই কোনো ভ্রূণ!
দক্ষিণবঙ্গ
শিরোনাম

কলকাতা, ২ সেপ্টেম্বরঃ কলকাতার হরিদেবপুরে পরিত্যক্ত জমি থেকে উদ্ধার হওয়া প্যাকেটগুলিতে কোনও ভ্রুণ মেলেনি। একথা জানাল সাউথ ওয়েস্ট ডিভিশন, ডিসি নীলাঞ্জন বিশ্বাস। প্যাকেটগুলি থেকে মিলেছে মেডিকেল বর্জ্য। এমআর বাঙুর হাসপাতালের চিকিৎসকরা এমনটাই জানিয়েছেন বলে খবর। তবে, কিছুক্ষণ আগেই ডিসি নীলাঞ্জন বিশ্বাসই সাংবাদিক বৈঠকে ভ্রুণের কথা জানান। পুলিশের এমন বয়ানে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে বিভিন্ন মহলে।

উল্লেখ্য, ৭২ কাঠা ফাঁকা জমি পরিষ্কারের সময় প্যাকেটগুলি উদ্ধার হয়েছিল। খবর ছড়িয়েছিল সেই প্যাকেটগুলিতে রয়েছে সদ্যোজাতের দেহ। এরপর সেগুলো উদ্ধার করে পাঠানো হয় এমআর বাঙুর হাসপাতালে। জানা যায়, রাসায়নিক বরফ জাতীয় কিছু রয়েছে তাতে। ফলে ময়নাতদন্তের কোনো প্রশ্নই ওঠে না। কারণ কোনো দেহাংশ মেলেনি সেই প্যাকেটে। অথচ প্যাকেটগুলি উদ্ধার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে খবর ছড়ায় প্রায় ১৪টি শিশুর দেহ রয়েছে তাতে। পুলিস কমিশনার থেকে মেয়র সকলেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পুলিশের তরফে সাংবাদিক বৈঠক করে বলা হয় সদ্যোজাতের দেহে ময়নাতদন্তের পর স্পষ্ট ঘটনা জানা যাবে। তারপরেই ঘটনার নাটকীয় পরিবর্তন ঘটে। এর নেপথ্যে ধোঁয়াশা ক্রমশ স্পষ্ট হতে শুরু করেছে। কারণ প্লাস্টিকের প্যাকেটগুলি যখন উদ্ধার হয় তখন সেগুলি পুলিশ বা মেয়র কেউই খুলে দেখেনি। শুধুমাত্র সাফাইকর্মীদের তথ্যের উপর ভিত্তি করেই খবরটি হয়।

ঘটনাস্থলের নিকটবর্তী সব নার্সিংহোমে অভিযান চালায় পুলিশ। জমির মালিক এবং কর্মীদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

নাটকীয় মোড়, উদ্ধার হওয়া প্যাকেটে নেই কোনো ভ্রূণ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *