Find us on

গ্যাস-অম্বল-ক্যান্সার রোধে কাঁচা হলুদ!
অন্যান্য
জীবনযাপন

উত্তরবঙ্গ সংবাদ পোর্টালঃ প্রাচীনকাল থেকেই আমাদের দেশে হলুদের গুরুত্ব অপরিসীম। শুধু রান্নায় নয়, রূপচর্চায়ও এর জুড়ি মেলা ভার। পাশাপাশি, প্রতিদিন সকালে খালি পেটে মধুর সঙ্গে একটু কাঁচা হলুদ খেলেও নানা উপকারী ফল পাবেন আপনি। চলুন দেখে নেওয়া যাক হলুদের গুণাগুণ-

১. সর্দি-কাশি দূর করতে হলুদ দারুণভাবে কাজ করে। কাশি কমাতে হলে এক টুকরো কাঁচা হলুদ মুখে রাখুন। গরম দুধের মধ্যে হলুদ মিশিয়ে খেলেও সর্দি-কাশি দূর হয়।

২. গ্যাস-অম্বল থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করে হলুদ। কাঁচা হলুদে গ্যাস-নিরোধক উপাদান থাকায় নিয়মিত কাঁচা হলুদ খেলে গ্যাস-অম্বলের সমস্যা দেখা দেবে না।

৩. কাঁচা হলুদ মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। নিয়মিত কাঁচা হলুদ খেলে ডিমেনশিয়া, অ্যালঝাইমার্স সহ মস্তিষ্কের বেশ কিছু সমস্যা দূর হবে।

৪. ক্যানসার নিরোধক হিসেবেও কাজ করে কাঁচা হলুদ।

৫. গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত কাঁচা হলুদ খেলে আর্থারাইটিসের সমস্যা অনেকটাই কমানো সম্ভব।

৬. কাঁচা হলুদ হার্টকে ভালো রাখতেও সাহায্য করবে।

৭. বয়সজনিত নানা সমস্যাকে দূরে রাখে কাঁচা হলুদ।

৮. ত্বকের জেল্লা ফেরাতে ও ব্রণর সমস্যা কমাতে দারুণ উপকারী কাঁচা হলুদ। কাঁচা হলুদের সঙ্গে দুধের সর মিশিয়ে ত্বকে লাগালে বলিরেখা দূর করতেও সাহায্য করে। কাঁচা হলুদ পেস্টের সঙ্গে দইয়ের মিশ্রণ ত্বকের ট্যান দূর করতে সাহায্য করে।

৯. গা-হাত-পা ব্যথা হলে দুধের মধ্যে একটু হলুদ মিশিয়ে খেতে পারেন। এতে ব্যাথা অনেকটাই সেরে যায়।

১০. আয়ুর্বেদিক মতে, রক্ত শুদ্ধ করতেও হলুদ বেশ উপকারী। তাই হলুদের ফুলের পেস্ট চর্ম রোগ দূর করতে সাহায্য করে।

গ্যাস-অম্বল-ক্যান্সার রোধে কাঁচা হলুদ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *