শুক্রবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৭


Find us on

মালদায় গেস্ট হাউসে খুন গৃহবধূ

মালদা, ৯ এপ্রিলঃ মালদার একটি গেস্ট হাউসে মিলল এক মহিলার মাথা থ্যাঁথলানো মৃতদেহ। মৃতের নাম মিনতি দাস (৪২)। খবর পেয়ে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মিনতি দাসের স্বামী চণ্ডী দাস বছরখানেক আগে সে তার পুত্রবধূকে শিলনোড়া দিয়ে খুন করার চেষ্টা করেছিল। সেই ঘটনায় তাকে জেল যেতে হয়। জেল থেকে ফিরে আসার পর তার সঙ্গে ছেলে ও পুত্রবধূর কোনো সম্পর্ক ছিল না। এমনকি তার স্ত্রী শ্রমিকের কাজে দিল্লি চলে গিয়েছিলেন। গতকালই দিল্লি থেকে মালদায় ফেরেন মিনতিদেবী। কিন্তু স্বামীর সঙ্গে তাঁকেও ঘরে উঠতে দেননি ছেলে ও পুত্রবধূ। তাই গতকাল চণ্ডী ওই গেস্ট হাউসের চারতলায় একটি ঘর ভাড়া নেয়। রবিবার বিকেল থেকেই অবশ্য চণ্ডীর কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। এদিকে রাত ৮টা নাগাদ গেস্ট হাউসের নৈশপ্রহরী ওই ঘরের চাবি সংগ্রহ করতে যান। দেখেন, ঘরের বাইরে ছিটকিনি লাগানো রয়েছে। ছিটকিনি খুলতেই দেখতে পান বিছানার ওপর পড়ে রয়েছে মিনতিদেবীর দেহ। তাঁর মাথায় ভারি কোনো জিনিস দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। এরপরেই হইচই পড়ে যায় মেডিকেল চত্বরে। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।