রবিবার, মে ২৮, ২০১৭


Find us on

আমেরিকায় জেলবন্দি ভারতীয় বিজ্ঞানী

মীরাট, ১৮ মেঃ আমেরিকায় জেলবন্দি ভারতীয় পরমাণু বিজ্ঞানী তরুণ কে ভরদ্বাজ (৩৮)। গত ৫ মাস ধরে জেলবন্দি রয়েছেন তিনি। তাঁর বিরুদ্ধে এক ছাত্রীকে হেনস্তা করার অভিযোগ রয়েছে।

যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তরুণ এবং তাঁর পরিবার। তাঁদের দাবি, জাতি বৈষম্যের কারণেই ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই বিজ্ঞানীকে দুর্নীতিতে ফাঁসানো হয়েছে। প্রতিকার পেতে তরুণের পরিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজেরও দ্বারস্থ হয়েছেন। যদিও তরুণের যে নির্দোষ তার প্রমাণ খুবই কম বলে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত ছিলেন ভারতীয় বিজ্ঞানী তরুণ কে ভারদ্বাজ। ওই বিশ্ববিদ্যালয়েরই এক ছাত্রীকে হেনস্তা করার অভিযোগে গত বছরের ডিসেম্বরে গ্রেফতার হন তিনি। ছাত্রীটিকে যে তাঁর ভালো লাগত সে কথা স্বীকার করে নিয়েছেন তরুণ। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করে তরুণ বলেন, ‘আমি ওই ছাত্রীটিকে পছন্দ করতাম। এর সঙ্গে ছাত্রী হেনস্তার কোনো বিষয় নেই। আমি জাগতিক বৈষম্যের শিকার। আমায় বড়ো ধরনের দুর্নীতিতে জড়ানো হয়েছে।’ যদিও এই বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজ করতে বা পড়তে আসা কেউ কখনও জাতিবিদ্বেষের শিকার হয়নি এবং এক্ষেত্রেও কোনো দুর্নীতি নেই বলে টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি।

হিউস্টনের ভারতীয় দূতাবাসের আধিকারিকও জানান, আগেও এই একই মামলায় গ্রেফতার হয়েছিল তরুণ। আদালতের কাজ শেষ হলেই তাঁকে ভারতে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।