Find us on

রাজস্থানে প্রান হারালেন মালদার যুবক, নেপথ্যে লাভ জেহাদ
দেশ
শিরোনাম

রাজসামন্দ(রাজস্থান), ৭ ডিসেম্বরঃ রাজস্থানে কাজ করতে গিয়ে প্রান হারালেন মালদার এক যুবক। লাভ জেহাদের ফলেই এমন পরিণতি বলে মনে করা হচ্ছে। বুধবার দুপুর ২টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে। রাজস্থানের সামন্ত গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে বিভিন্ন ছোটো খাটো কাজ করতেন বছর ৪৬-এর আফরাজুল খান। দীর্ঘদিন ধরেই সেখানে কর্মরত ছিলেন ওখানে। তাঁর বাড়ি পশ্চিমবঙ্গের মালদার জেলার কালিয়াচকের সইদপুর গ্রামে। স্ত্রী ও ৩ মেয়েকে নিয়ে ছিল আফরাজুলের সংসার। ২ মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে ছোটো মেয়ে স্কুলে পড়াশোনা করে। চুক্তিভিত্তিক শ্রমিকের কাজ করতেন আফরাজুল। কাজের জন্য তিনি মাঝে মাঝেই ভিনরাজ্যে যেতেন। রাজস্থানে কাজেই গিয়েছিলেন। যে ব্যক্তিটি  আফরাজুলের ওপর হামলা চালিয়েছেন তাঁর নাম শম্ভুলাল রেজার। তিনি স্থানীয় বাসিন্দা।

সূত্রে জানা গেছে, আফরাজুলকে খুন করার জন্য কাজের লোভ দেখিয়ে ওই জায়গায় নিয়ে আসেন শম্ভুলাল। সেখানে লাঠি দিয়ে তাঁকে মারা হয়, তারপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপ। বেধড়ক মার খেয়ে তখন বাঁচার আর্তি জানালেও কোনও লাভ হয়নি। এরপর তাঁকে জ্যান্ত জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। শুধু তাই নয় শম্ভুলাল এক বন্ধুকে দাঁড় করিয়ে গোটা ঘটনাটির ভিডিও তোলেন। পরে ওই ভিডিও নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন শম্ভুলাল। শোনা যাচ্ছে, শম্ভুলালের বোনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল আফরাজুলের। সেই সম্পর্কের কারণেই যুবককে খুন করা হয়েছে। খুনের কারণ লাভ জিহাদ হতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে।

এমন ঘটনা দেখে কার্যত হতবাক গোটা দেশ। রাজস্থানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, দোষী শম্ভুলালকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাস্থল থেকে একটি কুঠার এবং একটি স্কুটার উদ্ধার হয়েছে। অন্যদিকে, গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে মালদার কালিয়াচক এলাকায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *