Find us on

অতিরিক্ত আঙুল নাকি অশুভ, সদ্যোজাতের হাতে-পায়ে কোপ মায়ের
দেশ
শিরোনাম

ভুপাল, ৩০ ডিসেম্বরঃ হাতে-পায়ে অতিরিক্ত আঙুল থাকায় যদি মেয়ের বিয়ে না হয়। এই আশঙ্কায় সদ্যোজাতের আঙুল কেটে দিল মা। আর তার জেরে মৃত্যু হল শিশুটির। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের খাণ্ডয়া জেলায়। সংবাদমাধ্যমের থেকে ঘটনার কথা জানার পর শিশুটির দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তারপর ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়।

২২ ডিসেম্বর খাণ্ডয়া জেলার প্রত্যন্ত এলাকা সুন্দরদেব গ্রামের বাসিন্দা তারাবাই এক কন্যাসন্তানের জন্ম দেন। হাত-পা মিলিয়ে ২৪টি আঙুল ছিল ওই শিশুটির। আর সেটাই চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায় তারাবাইয়ের কাছে। অতিরিক্ত আঙুল নাকি অশুভ লক্ষণ। তাই যদি সদ্যোজাত কন্যার অতিরিক্ত আঙুলের জন্য বিয়ে না হয়, সেই আশঙ্কায় অতিরিক্ত আঙুলগুলি কেটে দেয় তারাবাই। রক্ত বন্ধ করার জন্য ক্ষতস্থানে গোবর লেপে দেয়। এর ঘণ্টাখানেক পরেই মৃত্যু হয় শিশুকন্যার। পুলিশ জানিয়েছে, মেয়ের মৃত্যুর খবরও গোপন করে গিয়েছিল তারাবাই। শিশুটির দেহ বাড়ির ভিতরেই পুঁতে দিয়েছিল সে। পরে পরিবারের অন্যদের সন্দেহ হওয়ায় ঘটনা প্রকাশ্যে আসে। শিশুটির দেহের ময়নাতদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। পুলিশ সুপার রুচি বর্ধন মিশ্র জানিয়েছেন, ময়নাতন্তের রিপোর্ট আসার পরই যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জেরায় অপরাধ স্বীকার করেছে তারাবাই।  শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট সামনে এলেই পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে।

অতিরিক্ত আঙুল নাকি অশুভ, সদ্যোজাতের হাতে-পায়ে কোপ মায়ের

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *