Find us on

অসমে মেখলা-শাড়ি যেতে বাধা, পথ অবরোধ তাঁত ব্যবসায়ীদের
উত্তরবঙ্গ
কোচবিহার
শিরোনাম

তুফানগঞ্জ, ১৯ জুনঃ অসমে যেতে দেওয়া হচ্ছে না মেখলা ও শাড়ি। এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে সোমবার পথ অবরোধ করল তুফানগঞ্জ হ্যান্ডলুম ওয়ার্কার্স ওয়েল ফেয়ার সোসাইটি। এদিন তারা ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কের থানা মোড় এলাকায় দুপুর ১টা থেকে পথ অবরোধ শুরু করে। এর জেরে রাস্তায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন তুফানগঞ্জ থানার ওসি সৌমাল্য আইচ ও তাঁর বিশাল পুলিশবাহিনী এবং তুফানগঞ্জ কেন্দ্রের বিধায়ক ফজল করিম মিয়াঁ। তাঁদের আশ্বাসে এই অবরোধ তুলে নেয় তারা।

জানা গিয়েছে, অসমে বৈধ কাগজপত্র ছাড়া মেখলা ও শাড়ি যেতে দিতে নারাজ ধুবরী জেলার বিধায়ক অশ্বিনী সরকার। এর জেরে প্রায় এক মাস ধরে অসমে ব্যাবসা করতে পারছেন না বাংলার তাঁতিরা। কার্যত ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে তুফানগঞ্জের তাঁত শিল্প। এই বিষয়ে কিছুদিন আগেই মহকুমা শাসকের দ্বারস্থ হন তাঁত শিল্পী ও ব্যবসায়ীরা। মহকুমা শাসকের কথামতো কিছুদিন অপেক্ষা করার পরেও কোনো সমাধান পাননি তারা। কার্যত বাধ্য হয়েই তারা এদিন পথ অবরোধের করেন।

এপ্রসঙ্গে তুফানগঞ্জ হ্যান্ডলুম ওয়ার্কার্স ওয়েল ফেয়ার সোসাইটি-এর সাধারণ সম্পাদক বিবেক দাস বলেন, ‘আমাদের বাংলার মেখলা ও শাড়ি অসমে যেতে বাধা দিচ্ছেন ধুবরী জেলার বিধায়ক অশ্বিনী সরকার। আমাদের দাবি, বিনা শর্তে সেখানে আমাদের ব্যাবসা করতে দেওয়া হোক। অসমের ব্যাবসায়ীরা আমাদের এখানে এসে ব্যাবসা করছেন সেখানে আমরা কোন বাধা দিচ্ছি না। তবে অসমের বিধায়ক কেন এমন ভাবে আমাদের বাধা দিচ্ছেন।’

পুলিশ সূত্রে খবর, এদিন প্রায় এক ঘণ্টা পথ অবরোধ করেন তাঁত ব্যাবসায়ীরা। তবে পরে আলোচনায় পথ অবরোধ উঠে যায়। পুলিশের তরফে সেখানকার পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *