Tuesday, July 23, 2024
Homeকলামবিষ উঠেছে মাথায়, তাগা বাঁধা কঠিন

বিষ উঠেছে মাথায়, তাগা বাঁধা কঠিন

 

  • আশিস ঘোষ

এখন ঠগ বাছতে গাঁ না উজাড় হয়ে যায়। দিকে দিকে যে রেটে দুর্নীতিগ্রস্ত, বাহুবলী, হাফ বাহুবলী, কোয়ার্টার বাহুবলীদের ছাঁটাই চলছে তাতে এমন একটা ভাবনা মাথায় আসতেই পারে। কারণ একটাই। শাসকদলের আগাপাশতলা কীভাবে এইসব প্রাতঃস্মরণীয় ব্যক্তিরা দখল করে রেখেছে তার নমুনা রোজই দেখছি আমরা।

কী উত্তর, কী দক্ষিণ এদের দাপট কোথাও কিছু কম নয়। দলনেত্রী এবারের ভোটের পর গোটা দলটাকে ঝাঁকুনি দিতে চেয়েছেন। সেরকমই অভিপ্রায় অভিষেকেরও। তিনিও নানাভাবে এইসব দুর্নীতিবাজদের ঘাড় ধরে বের করে দেওয়ার অভিপ্রায় জানিয়ে আসছেন। কিন্তু প্রশ্ন হল, অনেকটা দেরি হয়ে যায়নি কি? বিষ মাথায় উঠলে তাগা বাঁধার জায়গা পাওয়া যাবে তো? এরা বহু রূপে সম্মুখে আমাদের। কোথাও এদের নাম শাহজাহান, কোথাও জেসিবি, কোথাও বুলেট, খালেক কিংবা জয়ন্ত। দিকে দিকে তাদের দাপটের কাহিনী এখন খবরের কাগজে পাতা জোড়া। তাদের মাথায় কোনও না কোনও নেতার হাত।

আর সেই সঙ্গে উঠে আসছে বিঘের পর বিঘে, একরের পর একর সরকারি জমি দখল করে নেতাদের, তস্য চামচাদের বিশাল বিশাল রিসর্ট, খামারবাড়ির সচিত্র বিবরণ। এসব যে একদিনে বা এক বছরে হয়েছে তা নয়, সবার চোখের সামনে বছরের পর বছর এভাবেই তাবত আইনকানুনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে জোর যার মুলুক তার কথাটাকে সত্যি বলে প্রমাণ করে আসছে এরা, সুন্দরবন থেকে ডুয়ার্স সর্বত্র। গজলডোবার জমির বেহাল দশা দেখছেন সবাই।

এবারের ভোটে শহর এলাকায় দলের ভোট কমে যাওয়ায় তড়িঘড়ি ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামতে হয়েছে শাসকদল আর নবান্নকে। দলনেত্রী খোলাখুলি দলেরই ছোট-বড় নেতাদের বলতে গেলে তুলোধোনা করছেন। কোনও কোনও ক্ষেত্রে নেতাদের নাম করে ধমকেছেন সর্বসমক্ষে। সে হকার তোলা হোক, বেআইনি পার্কিং চালানো হোক, তোলাবাজি হোক, সরকারি জমি দখল হোক ছেড়ে কথা বলেননি কাউকে। তিনি নিজেই জানিয়েছেন দলের ভিতরে দুর্নীতির শিকড় কতদূর পৌঁছেছে।

অতএব দিকে দিকে বলতে গেলে ঝাঁপিয়ে পড়েছে দল আর পুলিশ প্রশাসন। আর সেই সূত্রেই রাজ্যবাসী জানতে পারছে এই রাজ্যটার হালহকিকত। অতীতের নজির দেখে সাধারণ মানুষ এতেও ঠিক ভরসা পাচ্ছেন না। কেননা এসব তৎপরতা যত ঢাকঢোল পিটিয়ে শুরু হয়, ঠিক ততটাই নিঃশব্দে তা আবার থিতিয়ে যায়। যা চলছিল তাই চলতে থাকে আবার। তৃণমূলের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ এটাই। মানুষ যেন আশ্বস্ত হয়, তারা সত্যিই দুর্নীতি আর তোলাবাজি বন্ধ করতে চায়। শহরের বাসিন্দাদের আস্থা ফিরিয়ে আনতে আর দ্বিতীয় কোনও পথ নেই।

আর তার জন্য দরকার নিরন্তর নজরদারি। এবং আরও কঠোরহাতে পুঁজরক্ত বের করে দেওয়া। যে কথা গোড়াতেই বলছিলাম, এই কাজটা নিশ্চিতভাবে সবথেকে কঠিন। বিষ মাথায় উঠলে তাগা বাঁধার জায়গা পাওয়া যায় না। কত বদলোককে শেষপর্যন্ত তাড়ানো যাবে তা বলা মুশকিল। কেন না এইসব বাহুবলীদের ভোটে জিততে কাজে লাগে। বিরোধীদের ঠান্ডা করতে, ভোটারদের চমকে রাখতে এদেরই প্রয়োজন। তাই তাদের জুলুম পার্টি রাখতে গেলে হজম করতেই হয়। আর তারা দলের মাথায় ধীরে ধীরে চেপে বসে। একসময় তাদের ঘাড় থেকে নামানো অসম্ভব হয়ে পড়ে। এটাই চলে আসছে বছরের পর বছর। জমানা পালটালেও এদের দাপট কমে না। এসব যে একদিন বদলে যাবে সে ভরসাও ক্রমে হারিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

আর পুলিশের কথা তো অমৃতসমান। যত বলা যায় ফুরোবে না। পুলিশ হুকুম মেনে চলে। প্রশ্নটা হল হুকুমটা কেমন। এত কিছু হচ্ছে চারদিকে পুলিশ জানে না তা কি হয়! চোখের সামনে কারা চোখের আড়ালে থাকে তা কি তারা জানে না। শাসকদলের চুনোপুঁটি নেতাদেরও ছোঁয়ার সাধ্যি তাদের নেই। পুলিশ কোনও আমলেই কি নিজেদের মতো কাজ করতে পেরেছে? আগের আমলে পাড়ায়, মহল্লায় এলসি অফিসের দিকে তাকিয়ে থাকতে হত তাদের। এ আমলে পার্টির দাদাদের। এই নতজানু বাহিনীকে দিয়ে সবকিছু আদৌ আমূল বদলানো যায় সেই বিশ্বাসটা এতদিনে হারিয়ে ফেলেছে আমজনতা।

সেই বিশ্বাস কতটা ফিরিয়ে আনা যাবে তা নির্ভর করছে শাসকের সদিচ্ছার উপর। আর তার উপরেই অনেকটা নির্ভর করছে তাদের হারানো ভোট ফিরিয়ে আনার অঙ্ক। সে বড় কঠিন কাজ।

Uttarbanga Sambad
Uttarbanga Sambadhttps://uttarbangasambad.com/
Uttarbanga Sambad was started on 19 May 1980 in a small letterpress in Siliguri. Due to its huge popularity, in 1981 web offset press was installed. Computerized typesetting was introduced in the year 1985.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -
- Advertisment -spot_img

LATEST POSTS

Gangarampur-Bhawan

Gangarampur Bhawan | প্রতিশ্রুতির ৩০ বছরেও হয়নি গঙ্গারামপুর ভবন

0
বিপ্লব হালদার, গঙ্গারামপুর: ভোটের প্রচারে প্রতিশ্রুতি ছিল, কলকাতায় গড়ে তোলা হবে গঙ্গারামপুর ভবন (Gangarampur Bhawan)। পুরভোটের পর বোর্ড গঠন হওয়া দু’বছর পেরিয়ে গেছে। কিন্তু...

Cricket corruption | টি২০ বিশ্বকাপে ক্রিকেট দুর্নীতি! তিন সদস্যের রিভিউ কমিটি গড়ল আইসিসি

0
কলম্বো: অভিযোগ বিস্তর। আর সেই অভিযোগ নিয়ে অবশেষে চাপে পড়ে নড়েচড়ে বসল ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা আইসিসি। কলম্বোয় আজই শেষ হওয়া ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থার বোর্ড...

Ritika Hooda | ছেলেদের সঙ্গে অনুশীলন, অলিম্পিকে পদক জিতে বিশ্বকে নিজের জাত চেনাতে চান...

0
প্যারিস: হরিয়ানার সোনেপতে রায়পুর রেসলিং অ্যাকাডেমি খুব জনপ্রিয়। এখানে পুরুষ ও মহিলাদের আলাদাভাবে কুস্তি অনুশীলনের ব্যবস্থা রয়েছে। কিন্তু এখানেই একটি মেয়ে নিয়মিত পুরুষদের বিরুদ্ধে...

Imran Khan | ‘খাঁচায় রাখা জঙ্গির মতো আছি’, জেলজীবন নিয়ে বিস্ফোরক ইমরান

0
ইসলামাবাদ: জেল তো নয়, যেন মৃত্যুকুঠুরি। ৭-৮ ফুটের কক্ষ। হাঁফছাড়া যায় না। রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা কারাগারে এমনই এক কক্ষে তাঁকে রাখা হয়েছে, সম্প্রতি এক ব্রিটিশ...

Gangarampur | সবজির দামের সঙ্গে ঊর্ধ্বমুখী গাঁদা, গৃহদেবতাকে পুজো দিতে হিমসিম খাচ্ছেন গৃহস্থরা

0
গঙ্গারামপুর: শুধু সবজির বাজার আগুন নয়। সবজির দামের সঙ্গে রীতিমতো পাল্লা দিচ্ছে গাঁদা ফুল। গঙ্গারামপুর (Gangarampur) বাজারে প্রায় ৩০০ টাকা কিলো দরে বিক্রি হচ্ছে...

Most Popular