Saturday, July 20, 2024
HomeExclusiveCooch Behar Sagardighi | কচুবনে ঢাকছে সাগরদিঘি, কোটি টাকার সৌন্দর্যায়ন নিয়ে প্রশ্ন

Cooch Behar Sagardighi | কচুবনে ঢাকছে সাগরদিঘি, কোটি টাকার সৌন্দর্যায়ন নিয়ে প্রশ্ন

শিবশংকর সূত্রধর, কোচবিহার: এ যেন প্রদীপের নীচে অন্ধকার। কোটি টাকা খরচ করে সাগরদিঘির
(Cooch Behar Sagardighi) সৌন্দর্যায়ন করা হচ্ছে। অথচ রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে সাগরদিঘির ভেতরের চারদিকই কচুবন সহ আগাছায় ঢেকে গিয়েছে। ক্ষুব্ধ হচ্ছেন পর্যটকরা (Tourists)। শুধু কংক্রিটের সৌন্দর্যায়ন নয়, দিঘির যথাযথ পরিবেশ ফিরিয়ে আনার দাবি তুলেছেন শহরের বাসিন্দারাও। এবিষয়ে পুরসভার চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেছেন, ‘সাগরদিঘি সৌন্দর্যায়নের কাজ চলছে। আগাছাগুলিও সাফাই করা হবে।’

সাগরদিঘিকে কোচবিহারের প্রাণকেন্দ্র বলা হয়। হেরিটেজের তালিকায় থাকা দুই শতাধিক বছরের পুরোনো এই দিঘিকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন সরকারি দপ্তর। সাগরদিঘির চারপাশে প্রতিদিনই হাজার হাজার মানুষের সমাগম হয়। বহু সংখ্যক পর্যটক সাগরদিঘি বেড়াতে আসেন। হেরিটেজের অঙ্গ হিসেবে সাগরদিঘির সৌন্দর্যায়নের কাজ চলছে। ঘাটগুলি সংস্কার ও নতুন করে রেলিং করা হচ্ছে। চারপাশে আন্ডারগ্রাউন্ড নিকাশি ব্যবস্থা ও পথবাতি বসানো হয়েছে। তবে সৌন্দর্যায়ন করলেই তা ঢাকা পড়ে যাচ্ছে আগাছায়। এদিন সাগরদিঘির চারপাশে দেখা গেল বড় বড় কচু গাছে ছেয়ে গিয়েছে গোটা চত্বর। অন্য আগাছাও হয়েছে। জলে আবর্জনাও ভাসতে দেখা গিয়েছে।

জামাইষষ্ঠীতে কোচবিহার (Cooch Behar) শহরে শ্বশুরবাড়িতে এসেছিলেন দিনহাটার বাসিন্দা রাজীব সরকার। সন্ধ্যায় স্ত্রী, শ্যালক, শ্যালিকাদের নিয়ে সাগরদিঘির পাড়ে বেড়াতে এসেছিলেন তিনি।

রাজীববাবু বললেন, ‘সাগরদিঘি কোচবিহারের গর্ব। এটিকে সবসময় পরিষ্কার রাখা প্রয়োজন। একদিকে কংক্রিটের উন্নয়ন চলছে। আরেকদিকে দিঘির চারপাশে আগাছা, কচুবনে ভরে গিয়েছে। কর্তৃপক্ষের এগুলি পরিষ্কার করা প্রয়োজন।’ কোচবিহারের প্রবীণ বাসিন্দা পেশায় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক প্রাণেশ বর্মনের কথায়, ‘সাগরদিঘির চারপাশে যেভাবে জঙ্গল হয়েছে তাতে সেখানে সাপ, পোকামাকড় থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। বহু মানুষ এখানে প্রাতর্ভ্রমণ করেন। রাত পর্যন্ত এখানে মানুষের আনাগোনা থাকেই। ফলে যে কোনওরকম সমস্যা হতেই পারে।’

বাসিন্দারা বলছেন, ৬-৭ কোটি টাকা খরচ করে সাগরদিঘির সৌন্দর্যায়নের যে প্রকল্প হচ্ছে তা সকলেরই নজর কাড়ছে। তবে শুধু কাজ হলেই হবে না, তার রক্ষণাবেক্ষণের চিন্তাভাবনাও কর্তৃপক্ষের রাখা উচিত ছিল। যদি সেটা হত তাহলে এই অবস্থা হত না। তাই কর্তৃপক্ষের দ্রুত পদক্ষেপ করার দাবি উঠেছে।

Sushmita Ghosh
Sushmita Ghoshhttps://uttarbangasambad.com/
Sushmita Ghosh is working as Sub Editor Since 2018. Presently she is attached with Uttarbanga Sambad Digital. She is involved in Copy Editing, Uploading in website and various social media platforms.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -
- Advertisment -spot_img

LATEST POSTS

Arnab Dam | ছেলেকে কেড়েছেন অর্ণব! মাও নেতার শাস্তি চেয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি নিহত শিক্ষকের...

0
কলকাতা:  লক্ষ্মী পূর্ণিমার জ্যোৎস্নায় ধোওয়া পাহাড়ের ছবি তুলতে অযোধ্যা পাহাড়ে গিয়েছিলেন শিক্ষক সৌম্যজিৎ বসু। তখনই তিনি মাওবাদীদের (Maoist) খপ্পরে পড়েন। মাওবাদীরা তাঁকে ও তাঁর...
hoarding-poster

Jalpaiguri | বৈদ্যুতিক তারে ঝুলছে পোস্টার, দুর্ঘটনার আশঙ্কা

0
জলপাইগুড়ি: মাস দুয়েক আগে মুম্বইতে একটি ফ্লেক্স লাগানো বিলবোর্ড ভেঙে পড়ে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। তা নিয়ে দেশজুড়ে শোরগোল হলেও জলপাইগুড়ি পুরসভার (Jalpaiguri Municipality)...

Champions Trophy | ভারত না গেলে পাকিস্তান থেকে সরতে পারে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, একই পথে...

0
উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্কঃ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে পাকিস্তানে যাবে না ভারত। ইতিমধ্যেই আইসিসিকে জানিয়ে দিয়েছে বিসিসিআই। এক্ষেত্রে বিপাকে পড়ে গিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থাটি। সে...

Bangladesh | বাংলাদেশ থেকে ভারতে ফিরলেন প্রায় হাজার পড়ুয়া, এখনও আটকে চার হাজার

0
ঢাকা: কোটা সংস্কার আন্দোলন ঘিরে উত্তাল বাংলাদেশে আটকে পড়েছেন কয়েক হাজার ভারতীয় পড়ুয়া। একটি সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত প্রায় এক হাজার জন...

Malda | উত্তরবঙ্গ সংবাদে প্রকাশিত খবরের জের, সরকারি জমি পুনরুদ্ধার করল প্রশাসন

0
সামসী: উত্তরবঙ্গ সংবাদে প্রকাশিত খবরের জেরে নড়েচড়ে বসল প্রশাসন। ভরাট হওয়া সরকারি জমি পুনরুদ্ধার করায় খুশি চাঁচলের বাসিন্দারা। সম্প্রতি সরকারি ডোবা জমি ভরাট করে দখলের...

Most Popular