Monday, July 15, 2024
Homeরাজ্যউত্তরবঙ্গMalda | ভাঙন অব্যাহত রতুয়ার খাসমহলে, শতাধিক বাড়ি নদীগর্ভে

Malda | ভাঙন অব্যাহত রতুয়ার খাসমহলে, শতাধিক বাড়ি নদীগর্ভে

মালদা: শনিবারেও ভাঙন অব্যাহত গঙ্গা এবং ফুলহর তীরবর্তী রতুয়ার খাসমহল এলাকায়। এই খাসমহল এলাকায় মহানন্দাটোলা এবং বিলাইমারি গ্রাম পঞ্চায়েতের কয়েকটি গ্রামে কার্যত বিভীষিকা পরিস্থিতি। এলাকাগুলিতে অভুক্ত শিশুদের কান্না, ঘর হারানো মানুষের আর্তনাদ, সব মিলিয়ে এক ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। ইতিমধ্যেই দুই শতাধিক বাড়ি নদীগর্ভে চলে গিয়েছে। যাদের বাড়ি এখনও আছে তাদের প্রায় প্রত্যেকেরই বাড়ি ভাঙতে শুরু করেছে। কারণ যে কোনও মুহূর্তেই নদী গ্রাস কর নেবে। সে ক্ষেত্রে বাড়ির থাকা জিনিস বাঁচানোর চেষ্টা করছেন সকলে। আর যাদের বাড়ি ইতিমধ্যেই চলে গিছে। তাদের কেউ কেউ চলে যাচ্ছেন আত্মীয়ের বাড়িতে।বাকিরা প্রশাসনের কাছ থেকে পাওয়া একটা পলিথিন টাঙিয়ে কোনক্রমে দিন কাটাচ্ছেন। প্রায় এক সপ্তাহ ধরে কেউ ভাত খেতে পাননি। ছাতু, মুড়ি, চিড়া যা ছিল তাও সব শেষের পথে।

একদিকে, জমি বাড়ি হারানোর যন্ত্রণা। অন্যদিকে, পেটে খিদের জ্বালা। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে এখনও কোনও ত্রাণ শিবির খোলা হয়নি। এমনকি ত্রাণ সামগ্রীও দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। ক্ষুদার্ত শিশুদের কান্নার আওয়াজে ভারী হয়ে উঠছে খাসমহলের বাতাস। প্রশাসনিক সাহায্য বলতে শুধু মিলেছে একটি করে পলিথিন। তাও সকলে পাননি।এক্ষেত্রেও স্থানীয় নেতৃত্বরা স্বজনপোষণ এবং দুর্নীতি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এলাকার মানুষের বক্তব্য, প্রশাসন যদি না দেখে। এরপর নদীতে ঝাপ দিয়ে আত্মহত্যা করা ছাড়া তাঁদের কাছে কোনও উপায় থাকবে না। যদিও এদিন দুপুর নাগাদ ভাঙন কবলিত এলাকাগুলিতে যান স্থানীয় বিধায়ক সমর মুখোপাধ্যায়। সঙ্গে ছিলেন মহকুমা শাসক সৌভিক মুখোপাধ্যায়। বিধায়ক যেতেই তাঁকে ঘিরে নিজেদের ক্ষোভ উগড়ে দেন সর্বস্ব হারানো মানুষগুলো। তবে বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ সমরবাবু পাশে থাকার আশ্বাস দিয়ে ভাঙনের দায় কেন্দ্রের উপর চাপিয়ে দিয়ে অতি দ্রুত সেই ক্ষোভের প্রশমন করেন।

স্থানীয় গৃহবধূ রোমিশা খাতুন বলেন, ‘বাড়িঘর সব চলে গেছে। ছয় দিন ধরে এক কাপড়েই আছি। খাবার বলতে শুধু ছাতু। আমরা তাও সহ্য করে নিচ্ছি। বাচ্চাগুলো খুব কষ্ট পাচ্ছে। এখনও পর্যন্ত একটা পলিথিন ছাড়া সরকার থেকে কিছুই পাইনি।‘

বিধায়ক সমর মুখোপাধ্যায় বক্তব্য, ‘ত্রাণসামগ্রী চলে এসেছে। রাজ্য সরকার তার স্বল্প ক্ষমতার মধ্যে সবটাই করছে। কিন্তু ভাঙন সমস্যার স্থায়ী সমাধান কেন্দ্রের জন্য হচ্ছে না। আমি নিজে মহানন্দাটোলার মানুষ। এই কষ্টটা বুঝি।‘

Sucharita Chanda
Sucharita Chandahttps://uttarbangasambad.com/
Sucharita Chanda is working as Sub Editor Since 2020. Presently she is attached with Uttarbanga Sambad. She is involved in Copy Editing, Uploading in website and various social media platforms.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -
- Advertisment -spot_img

LATEST POSTS

অলীক পাখি (পর্ব-৬)

0
বিপুল দাস তপন টের পেল অপমানে তার শরীরজুড়ে আগুনের মতো রক্তস্রোত ছুটে যাচ্ছে। কানফান সব ঝাঁঝাঁ করছে। এই মেয়েটার সঙ্গে সিধুর বিয়ে যদিও বা...

Kaliaganj | অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ! পুলিশের জালে চার বাংলাদেশি, ধৃত আশ্রয়দাতাও

0
কালিয়াগঞ্জ: সীমান্ত পারাপারের বৈধ কাগজপত্র দেখাতে না পারায় কালিয়াগঞ্জের এক বাড়ি থেকে বাড়ির মালিকসহ চার বাংলাদেশি যুবককে গ্রেপ্তার করল কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ। ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক...

Puri Ratna Bhandar | সত্যিই কি রত্নভাণ্ডার আগলে রেখেছিল সাপ? ঘুরে এসে অভিজ্ঞতা জানালেন...

0
উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক: ৪৬ বছর পর রবিবার খোলা হয় পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের (Jagannath Temple) রত্নভাণ্ডারের দরজা। জগন্নাথের সেই রত্নভাণ্ডার (Puri Ratna Bhandar) নাকি...

Narendra Modi | মুকুটে নতুন পালক, মোদির এক্স হ্যান্ডলে ফলোয়ারের সংখ্যা ছাড়াল ১০০ মিলিয়ন

0
উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মুকুটে জুড়ল আরও এক পালক। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্স হ্যান্ডলে তাঁর ফলোয়ারের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেল ১০০...

Siliguri | শপিং মলের চৌহদ্দিতে পাহাড়ি বাজার! ‘গোর্খা হাট’-এ ভিড় জমাচ্ছেন শহরবাসী

0
শিলিগুড়ি: হাট বসেছে শুক্রবারে/বকশিগঞ্জের পদ্মাপারে। উঁহু, এখানে ‘বকশিগঞ্জ’ও নেই, ‘পদ্মাপার’ও নেই। যা আছে, তা হল আস্ত একখানা শপিং মল। তারই বাইরে কিনা বসছে হাট! ভাবতে...

Most Popular