Saturday, May 25, 2024
Homeউত্তর সম্পাদকীয়শিল্পকলার অপব্যবহার নিয়ে কিছু প্রশ্ন

শিল্পকলার অপব্যবহার নিয়ে কিছু প্রশ্ন

 

  • পার্থ চৌধুরী

আমাদের ছেলেবেলায় শিলিগুড়িতে নামগানের রমরমা ছিল উল্লেখ করার মতো। কোনও কোনও ঘুম না আসা মধ্যরাতে শুনতে পেতাম, বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে কীর্তনের সুর। তখন মাইকের ব্যবহার না করেই আসর বসত পাড়ায় পাড়ায়। সেটাই রেওয়াজ ছিল সে সময়। তাছাড়া আর্থিক অসামর্থ্যও এই ব্যবস্থার দিকে ঠেলে দিয়েছিল বলে ধারণা করা যায়। একমাত্র অষ্টপ্রহরের মতো অনুষ্ঠান হলেই মাইক জরুরি মনে করতেন উদ্যোক্তারা।

এমন আবহেই হঠাৎ এক সংস্থা রাম নাম নিয়ে আসর বসানো শুরু করল আমাদের জনপদে। তাঁদের আর্থিক ভিত্তি মজবুত থাকার কারণেই সম্ভবত, এই সম্প্রদায়ের সব আসরেই মাইক বাজত। আর একটি নতুন বৈশিষ্ট্যরও আমদানি করলেন এঁরা। জনপ্রিয় বলিউডি হিন্দি গানের সুর কীর্তনে আমদানি করলেন। নামসংকীর্তনের প্রচলিত সুরকে পেছনের সারিতে পাঠিয়ে দিলেন তাঁরা। প্রথমে সমালোচনা হলেও, কীভাবে যেন এই ধারাটি মান্যতা পেয়ে গেল সামাজিকভাবে।

যে সময়ের কথা বলছি, তখন রবীন্দ্রসংগীত কপিরাইটের আওতায়। সবাইকে অনুমতি সাপেক্ষে এবং স্বরলিপি মেনে রেকর্ড করতে হত। সময়ান্তরে এক সময় সেটা উঠে গেলেও বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া তেমন বিকৃতি কিন্তু ঘটল না। অর্থাৎ মানুষ আমল দেয়নি খোদার ওপর খোদকারিকে।

আজও সভ্য দেশের অলিখিত নিয়ম এটাই যে, কারও সৃষ্টি নিয়ে অনুমতি ছাড়া কিছু করা অনৈতিক এবং বেআইনি। সেটা সাহিত্য, সংগীত, চিত্রকলা বা অন্য যে কোনও শিল্প, যাই হোক না। কিন্তু সেটা জনগণ সর্বদা সর্বক্ষেত্রে যে মেনে চলে না, তার উদাহরণ প্রচুর। এসবের পেছনে কারণ হিসাবে চিন্তার দৈন্য এবং গাজোয়ারি, এই দুটোই বিদ্যমান। উচিত-অনুচিত বা ন্যায়-অন্যায় ভাববার মতো মগজ এবং শিক্ষা স্বার্থান্বেষীদের কখনোই থাকে না, জানি আমরা। বিশেষত ব্যবসায়িক লাভ থাকলে, তারা তোয়াক্কাই করে না নীতিকথার। তাই এমন অঘটনগুলো ঘটেই চলেছে বিনা বাধায়।

সাম্প্রতিক অতীতে একটি নির্মাণ সংস্থা তাদের ব্যবসায়িক প্রচারে ‘ধন ধান্য পুষ্পে ভরা…’ গানের কথা পালটে অবিকল সেই সুরে গানটি বাজারজাত করল। যে গান আমরা বিদ্যালয়ের প্রার্থনা সংগীত হিসাবে গাইতাম, সেই গানের কথা পালটে আবাসনের প্রকৃতি, অবস্থান, সুযোগসুবিধা সংক্রান্ত কথায় ভরিয়ে সে গান প্রচারিত হল। সেটা গাইলেন কারা? বাংলার প্রথিতযশা সংগীতশিল্পীরা।

কেন এই কাজের সঙ্গে যুক্ত হলেন তাঁরা? কেন আবার, কাঞ্চন মূল্যের জন্য। আচ্ছা, অর্থের জন্য নৈতিকতাকে এভাবে বিক্রি করা যায়?

সুখের কথা, বিজ্ঞাপনটির প্রচার বন্ধ হয়েছে। মানুষ সরব হয়েছে এই অনাচারের বিরুদ্ধে। তাই ব্যবসায়িক সংস্থাটি বুঝেছে, প্রচারের বদলে অপপ্রচারে তাদের ব্যবসা মার খাবে।

জানি না এই ঘটনার সংশ্লিষ্ট শিল্পীরা কতটা লজ্জিত হয়েছেন। তবে আমার ধারণা, তাঁদের চেতনায় নিশ্চয়ই এক কম্পন হয়েছে। আগামীতে তাঁরা যথেষ্ট সাবধান থাকবেন, ধরে নেওয়া যায়।

তবে ব্যবসায়িক সংস্থাটি দুঃখ প্রকাশ করেছে, এমনটা কিন্তু এখনও চোখে পড়ল না। ভবিষ্যতের স্বার্থে রাজ্য সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ কি এ বিষয়ে কোনও পদক্ষেপ করতে পারে না?

(লেখক শিলিগুড়ির নাট্যকর্মী)

Uttarbanga Sambad
Uttarbanga Sambadhttps://uttarbangasambad.com/
Uttarbanga Sambad was started on 19 May 1980 in a small letterpress in Siliguri. Due to its huge popularity, in 1981 web offset press was installed. Computerized typesetting was introduced in the year 1985.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -
- Advertisment -spot_img

LATEST POSTS

IPL | চেন্নাইয়ের ঘূর্ণি পিচে দুরন্ত বোলিং শাহবাজের, ৩৬ রানে রাজস্থানকে হারিয়ে আইপিএলের ফাইনালে...

0
উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্কঃ রাজস্থান রয়্যালসকে ৩৬ রানে হারিয়ে আইপিএলের ফাইনালে চলে গেল হায়দরাবাদ। রবিবার ফাইনালে কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে মুখোমুখি হবে হায়দরাবাদ। চেন্নাইয়ের...

Bangladeshi MP Death | ‘আমার বাবাকে শেষবারের মতো ছুঁয়ে দেখতে চাই’, বললেন নিহত সাংসদ...

0
উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্কঃ ‘আমার বাবাকে শেষবারের মতো ছুঁয়ে দেখতে চাই’, বাবার মৃত্যুর খবর শোনার পর সাংবাদিকদের সামনে কান্নায় ভেঙে পড়লেন নিহত বাংলাদেশের সাংসদ...

Harischandrapur | সোশ্যাল মিডিয়ায় হদিস মিলল তরুণের, উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজের মর্গে দেহ, জানালো পুলিশ

0
হরিশ্চন্দ্রপুরঃ সোশ্যাল মিডিয়ায় খোঁজ মিলল হরিশ্চন্দ্রপুরের নিখোঁজ তরুণের। শিলিগুড়ি স্টেশনের কাছে রেল লাইনের ধার থেকে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান করা হচ্ছে,...
mehenti artist want to change their profession

ডাইসের চাপেই হাতে ফুটে ওঠে মেহেন্দির নকশা, চাহিদা না থাকায় পেশা বদলাতে চান কারিগররা

0
পতিরাম: গ্রামের মেলাতে একসময়ের চেনা ছবি, ছোট থেকে বড় মেয়েরা সারি সারি ভাবে বসে মেহেন্দির দোকানদারের কাছে বিভিন্ন ডিজাইনের ডাইসে মেহেন্দির ছাপ করাচ্ছে। যুগ...

Kolkata Police | কলকাতার একাংশে ২ মাসের জন্য ১৪৪ ধারা জারি পুলিশের, শুরু বিতর্ক

0
উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক:  কলকাতার একাংশে ২ মাসের জন্য ১৪৪ ধারা জারি করে দিল কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police)। পুলিশ কমিশনার বিনীত গোয়েল বিবৃতি জারি...

Most Popular