Saturday, May 18, 2024
Homeরাজ্যদক্ষিণবঙ্গস্কুলে রিল তৈরিতে বাধা! বাবাকে নিয়ে প্রধান শিক্ষককে মারতে উদ্যত ছাত্র

স্কুলে রিল তৈরিতে বাধা! বাবাকে নিয়ে প্রধান শিক্ষককে মারতে উদ্যত ছাত্র

বর্ধমান: ছাত্রকে শাসন করিছেলেন প্রধান শিক্ষক। তাই বাবাকে সঙ্গে নিয়ে স্কুলে ঢুকে প্রধান শিক্ষককে মারধর করতে উদ্যত হল ভোকেশনাল কোর্সের পড়ুয়া। তবে বাকি শিক্ষকদের হস্তক্ষেপে রক্ষা পান প্রধান শিক্ষক। হাওড়ার স্কুলে শিক্ষক নিগ্রহের ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে ফের এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল পূর্ব বর্ধমানের সিঙ্গি অঞ্চলের ওকরষা উচ্চ বিদ্যালয়ে। এনিয়ে বৃহস্পতিবার হুলস্থুল পড়ে যায় স্কুলে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

স্কুলের অন্যান্য পড়ুয়া ও শিক্ষকরা জানান, যে ছাত্রের জন্য এদিন স্কুলে শোরগোল হয় সেই ছাত্র মাধ্যমিক উত্তীর্ণ। ভোকেশনাল কোর্সের জন্য সে ওকরষা উচ্চ স্কুলে ভর্তি হয়েছে। অভিযোগ, কয়েকদিন ধরেই ওই ছাত্র স্মার্টফোন নিয়ে স্কুলে এসে ছাত্রীদের নিয়ে বিভিন্ন ধরনের ‘রিল’ তৈরি করছিল। বিষয়টি নিয়ে আপত্তি করে স্কুলের ছাত্রীরা। বুধবার ওই ছাত্র স্কুলের ছাদে গিয়ে ভিডিও রেকর্ড করার জন্য অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীদের ওপর চাপ সৃষ্টি করে বলে অভিযোগ। ছাত্রীরা আপত্তি জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই ছাত্র স্কুলের ছাত্রীদের হুমকি দেয়।

বিষয়টি জানতে পেরে প্রধান শিক্ষক জয়ন্ত সরকার গতকাল ওই ছাত্রকে বকাবকি করেন। পড়ুয়ার কানমুলে দেন তিনি। প্রধান শিক্ষক বলেন, ‘ছাত্রীদের কাছে অভিযোগ পেয়ে আমি প্রথমে ওই ছাত্রকে সতর্ক করে দিয়েছিলাম। কিন্তু তাতেও কাজ হয়নি। তাই গতকাল আমি তাকে বকা দিয়ে কানমুলে দি। সেই কারণে এদিন ওই ছাত্র তার বাবাকে সঙ্গে করে স্কুলে নিয়ে এসে ঝামেলা করে। আমার ওপর চড়াও হয়।’ সহ শিক্ষকরা জানান, এদিন ওই ছাত্র তার বাবাকে সঙ্গে নিয়ে স্কুলে চড়াও হয়। ছাত্রের বাবার হাতে একটি লাঠিও থাকে। তারপর পিতা-পুত্র মিলে স্কুলে প্রধান শিক্ষকের অফিসে ঢুকে যান। দু’জনে প্রধান শিক্ষককে মারতে উদ্যত হন। চিৎকার শুনে অন্য শিক্ষক-শিক্ষিকারা প্রধান শিক্ষকের ঘরে ছুটে যান। তাঁরাই প্রধান শিক্ষককে রক্ষা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ স্কুলে পৌঁছায়। তখনই পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে ওই ছাত্র ও তাঁর বাবা পুলিশ ও স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন।

প্রসঙ্গত, চলতি মাসে হাওড়ার একটি স্কুলের ছাত্রকে শাসন করায় স্কুলের টিচার্স রুমে ঢুকে ইংরেজি শিক্ষককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ ওঠে পড়ুয়ার পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ কয়েকজন হামলাকারীকে গ্রেপ্তারও করে। এবার পূর্ব বর্ধমানে এমন ঘটনায় ধিক্কার জানিয়েছেন শিক্ষানুরাগী মহল।

Sushmita Ghosh
Sushmita Ghoshhttps://uttarbangasambad.com/
Sushmita Ghosh is working as Sub Editor Since 2018. Presently she is attached with Uttarbanga Sambad Digital. She is involved in Copy Editing, Uploading in website and various social media platforms.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -
- Advertisment -spot_img

LATEST POSTS

0
পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে মৃত্যু পৌঁড়ের, এলাকায় চাঞ্চল্য শনিবার সকালে মুর্শিদাবাদের ভরতপুর থানার হামিদপুর–বাগেশ্বরীতলা এলাকা থেকে এক প্রৌঢ়ের বস্তাবন্দী দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল। পুলিশ...
NBMCH

North Bengal Medical | টাকার বিনিময়ে মৃত্যুর শংসাপত্র! কড়া পদক্ষেপ উত্তরবঙ্গ মেডিকেলের

0
শিলিগুড়ি: টাকার বিনিময়ে মৃত্যুর শংসাপত্র (Death Certificate) দেওয়ার ঘটনায় কড়া পদক্ষেপ করল উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল (North Bengal Medical) কর্তৃপক্ষ। ওই বিভাগের দায়িত্বে...
water-crisis

Water Crisis | জলস্তর নেমে যাওয়ায় সমস্যা, পানীয় জলের তীব্র সংকট গঙ্গারামপুরে

0
বিপ্লব হালদার, গঙ্গারামপুর: তাপপ্রবাহে নাভিশ্বাস উঠেছে গঙ্গারামপুরবাসীর। গোদের উপর বিষফোঁড়ার মতো শহরজুড়ে পানীয় জলের তীব্র সংকট(Water Crisis) দেখা দিয়েছে। অভিযোগ, পুরসভার বসানো পাম্পগুলি অকেজো...

Dalkhola | মাদক ব্যবসার স্বর্গরাজ্যে পরিণত ডালখোলা, পুলিশের হাতে ধৃত বাংলাদেশি পাচারকারী

0
করণদিঘি: বিগত কয়েকদিন ধরেই ডালখোলা, গোয়ালপোখর সহ আশেপাশের এলাকাগুলি মাদক ব্যবসার স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠেছে। এই এলাকা থেকে মাদক কিনে জেলার বিভিন্ন প্রান্তে সরবরাহ করছে...
Marriage of a girl with a 45-year-old man, police rescued bride

Gangarampur | ৪৫-এর ব্যক্তির সঙ্গে কিশোরীর বিয়ে, কনেকে উদ্ধার করল পুলিশ

0
বিপ্লব হালদার, গঙ্গারামপুর: যে বয়সে বইখাতা নিয়ে স্কুলে যাওয়ার কথা, সেই বয়সেই মেয়েকে বিয়ে দিয়ে শ্বশুরবাড়িতে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন অভিভাবকরা। ১৩ বছরের সেই বালিকা বধূকে...

Most Popular