Find us on

ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার, মৃত্যু নিয়ে ধন্দ
আলিপুরদুয়ার
উত্তরবঙ্গ

কালচিনি, ৭ সেপ্টেম্বরঃ এক ব্যক্তির ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও বন দপ্তরের মধ্যে চাপানউতোর শুরু হয়েছে। আজ সকালে কালচিনি থানার নিমতি দোমোহনি গ্রামে বামনি নদীর ধারে মূক ও বধির বহেরা ওঁরাও (৪০) নামে এক ব্যক্তির ক্ষতবিক্ষত দেহ দেখতে পান গ্রামবাসীরা। বনদপ্তরের দাবি, ওই ব্যক্তি খুন হয়েছেন। যদিও পুলিশের দাবি, খুন নয়, চিতাবাঘের হামলায় ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরাও পুলিশের দাবিতেই সায় দিয়েছেন। তাঁরা জানিয়েছেন, আজ সকালে একটি চিতাবাঘ বহেরা ওরাওঁ এর ওপর হামলা চালায়। ক্ষত-বিক্ষত হয়ে যায় তাঁর মুখ। হতভম্ব হয়ে পুলিশ ও বনকর্মীদের খবর দেন তাঁরা। ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কালচিনি থানার পুলিশ ও বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের অধীন নিমাতি রেঞ্জের বনকর্মীরা। কালচিনি থানার ওসি লাকপা লামা জানান, বাঘের হামলাতেই ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। নিমতির রেঞ্জার ভবেন ঋষি বলেন, ওই ব্যক্তিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করা হতে পারে। স্থানীয় সূত্রের খবর, মূক ও বধীর নিরীহ ওই ব্যক্তির সঙ্গে কারোর শত্রুতা ছিল না। তাই খুন করার বিষয়টিকে উড়িয়ে দিচ্ছে পুলিশ। কালচিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পরই গোটা বিষয়টি পরিস্কার হয়ে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *