Find us on

বালুরঘাট থানায় ঋতব্রতর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের
উত্তর দিনাজপুর
দক্ষিণবঙ্গ
প্রথম পাতা

বালুরঘাট ও কলকাতা, ১০ অক্টোবরঃ বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগের পর এবার বালুরঘাট থানায় ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলেন তাঁর এক সময়ের ঘনিষ্ঠ বান্ধবী নম্রতা দত্ত। বালুরঘাটের খাদিমপুর এলাকার বাসিন্দা পেশায় সফ্টওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার নম্রতার অভিযোগ, একাধিকবার তাঁর সঙ্গে সহবাস করে ঋতব্রত। বিয়ের কথা বললে, টাকা দিয়ে মুখ বন্ধ করার চেষ্টাও করা হয়।

তিনি আরও বলেন, মুখ বন্ধ করতে তাঁর অ্যাকাউন্টে ঋতব্রত আড়াই লক্ষ টাকা দিয়েছেন। এছাড়া মুখ না খুললে আরও ৫০ লক্ষ টাকা দেবেন বলেও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। শেষমেষ অন্য একজনকে দিয়ে খুন ও ধর্ষণের হুমকিও দেওয়া হয়েছে তাঁকে।

এছাড়াও টুইটে নম্রতা অভিযোগ করেছিলেন, ‘একাধিক মহিলার সঙ্গে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করতেন ঋতব্রত। তারপর বলতেন, ওই মেয়েরা তাঁকে ব্ল্যাকমেল করছে।’

আজ বালুরঘাট থানায় ঋতব্রতর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন ও কঠোর শাস্তির দাবি করেন ওই যুবতী।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ঋতব্রত। সেই মর্মে তিনি বালুরঘাটের নম্রতা দত্তের বিরুদ্ধে ৬ অক্টোবর গড়ফা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঋতব্রত দাবি করেন, প্রথমে নম্রতাকে বাইরে পড়তে যাওয়ার জন্য তিনি ব্যাংক থেকে ঋণ পাইয়ে দিতে সাহায্য করেছিলেন। তারপর থেকে বার বার ওই যুবতী টাকা চাইতে শুরু করেন বলে অভিযোগ।

ঋতব্রতর দাবি, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তাঁর ভাবমূর্তি, রাজনৈতিক কেরিয়ার এবং সম্পত্তি নষ্টের জন্য মিথ্যে অভিযোগ করা হচ্ছে। এর পেছনে প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের হাত রয়েছে বলেও দাবি ঋতব্রতর।

উল্লেখ্য, বেঙ্গালুরুতে সফ্টওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করার সময় ২০১৬ সালে টুইটারে ঋতব্রতর সঙ্গে আলাপ হয়েছিল নম্রতার। সেবছরই জুন মাসে বালুরঘাটে এসে নম্রতার বাড়িতে সকলের সামনে তাঁকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল ঋতব্রত। তারপর থেকেই বাড়তে থাকে দুজনের মধ্যে মেলামেশা। বিয়ে হওয়ার কথা ছিল ১৫ অক্টোবর। তাই নেদারল্যান্ডে পিএইচডি করতে থাকা নম্রতা স্টাডি লিভ নিয়ে ৪ সেপ্টেম্বর বাড়িতে আসেন। দল থেকে বহিষ্কারের পর ঋতব্রত নম্রতাকে এড়িয়ে যেতে থাকেন। তখনই সন্দেহ দানা বাধতে থাকে। এরপর খোঁজখবর নিয়ে জানতে পারেন দূর্বা সেন নামে নতুন বান্ধবী হয়েছে ঋতব্রতর। যার জন্য নম্রতাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেন তিনি। এদিকে, সাংসদের নতুন বান্ধবী নম্রতার সঙ্গে ঋতব্রতর সমস্ত ছবি ও তথ্যপ্রমাণ ভুয়ো বলে দাবি করেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *