Find us on

মুশারফ পতালক অপরাধী, বাজেয়াপ্ত সম্পত্তি, বেনাজির হত্যায় রায় আদালতের
আন্তর্জাতিক
প্রথম পাতা

ইসলামাবাদ, ৩১ আগস্টঃ পাকিস্তানের প্রাক্তণ প্রধানমন্ত্রী বেনাজির ভুট্টো হত্যা মামলায় বৃহস্পতিবার পারভেজ মুশারফকে পলাতক অপরাধী ঘোষণা করল পাকিস্তানের বিশেষ সন্ত্রাস দমন আদালত। মুশারফের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করারও নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

এই মামলায় দুই শীর্ষ পুলিশকর্তার ১৭ বছরের কারাবাসের নির্দেশও দিয়েছে সন্ত্রাস দমন আদালত। এঁরা হলেন রাওয়ালপিন্ডির প্রাক্তন সিপিও সৌদ আজিজ ও রাওয়াল টাউনের প্রাক্তন এসপি খুররম শাহজাদ। এদিন সন্ত্রাস দমন আদালতের বিচারক আসগর খানের রায় ঘোষণার সময় কোর্টরুমে হাজির ছিলেন জামিনে মু্ক্ত ওই দুজন। ৫ লক্ষ পাকিস্তানী টাকা করে জরিমানাও হয়েছে তাঁদের।

তবে প্রমাণের অভাবে আরও ৫ অভিযুক্ত রেহাই পেয়েছে মামলা থেকে। জানা গিয়েছে, তারা সকলেই তালিবান সদস্য। যারা ভুট্টোর মৃত্যুর ষড়যন্ত্রে জড়িত ছিল।

ভুট্টোর পর মুশারফ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। গত বছর চিকিত্সার জন্য দেশত্যাগের অনুমতি পেয়েছিলেন তিনি। তখন থেকে তিনি রয়েছেন দুবাইয়ে।

এদিন কোর্ট মুশারফকে পলাতক আখ্যা দেয় এবং আইনত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। পাকিস্তানে ফিরলে তাঁকে অবশ্যই ট্রায়ালে আসতে হবে জানায় আদালত।

২০০৭ সালের ২৭ ডিসেম্বর ভোটপ্রচারে রাওয়ালপিন্ডির লিয়াকত বাগের সমাবেশে ভাষণ দিয়ে বেরিয়ে আসার সময় গুলি এবং বিস্ফোরণে নিহত হন বেনাজির। বয়স হয়েছিল মাত্র ৫৭ বছর। দুবার পাক প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন বেনজির। এই ঘটনার পরই একটি মামলা রুজু হয়েছিল। বেনাজির হত্যা মামলায় বিচররত আট বিচারককে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন জায়গায় বদলে করা হয়েছিল। তবে অনেক উত্থান পতনের মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ১০ বছর বাদে গতকাল শেষ হয়েছে বেনজির হত্যা মামলার বিচার প্রক্রিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *