শুক্রবার, জুলাই ২৮, ২০১৭


Find us on

আদিবাসীদের মিছিলে আতঙ্কিত রায়গঞ্জ শহরবাসী

রায়গঞ্জ, ১৪ জুলাইঃ তিন আদিবাসী যুবতীর ধর্ষণের ঘটনায় শুক্রবার দুপুর ২টা নাগাদ উত্তপ্ত হল রায়গঞ্জ। দিন ছয়েক আগে রায়গঞ্জ শহরের পুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় শিলিগুড়ি মোর ও উদয়পুর মাঠ থেকে আদিবাসীদের বিভিন্ন সংগঠন মিছিল বের করে। রায়গঞ্জ শহরের পুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আসতেই ছন্দ পতন ঘটে মিছিলের।

শহরের বিদ্রোহী মোর থেকে শিলিগুড়ি মোর পর্যন্ত রাস্তার পাশে থাকা একাধিক দোকানে ভাঙচুর চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। রাস্তার পাশে থাকা ছোট ছোট গাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয়। ঘটনার খবর পেয়ে দমকলের দুটি ইঞ্জিন আসে ঘটনাস্থলে। আগুন নেভানোর কাজে দমকলকর্মীরা। স্কুল ছুটির সময়ে এমন ঘটনা ঘটায় আতঙ্কিত পড়ুয়ারাও।

প্রতিবাদ মিছিলে আদিবাসী সংগঠনের নেতাদের এহেন কান্ডে রিতিমত হতবাক রায়গঞ্জ শহরের মানুষ। আদিবাসী সংগঠনের নেতাদের বক্তব্য, দোষীদের শাস্তির দাবিতে মিছিল করা হয়। পুলিশ সুপার অমিত কুমার ভরত রাঠর বলেন, তিন ধর্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের খোঁজে চলছে তল্লাশি। তবে আদিবাসী সংগঠনের এমন ঘটনায় রিতিমত আতঙ্কিত শহরবাসী।

রায়গঞ্জের শিলিগুড়ি মোর এলাকার ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধের জেরে সৃষ্টি হয়েছে ব্যপক যানজট।

ঘটনাস্থলে রয়েছেন রায়গঞ্জের বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্ত, তৃণমূলের রায়গঞ্জ পুরসভার চেয়ারম্যান সন্দীপ বিশ্বাস। অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রায়গঞ্জের সমস্ত দোকানপাট। বন্‌ধের ডাক দিয়েছে রায়গঞ্জ শহরের ব্যবসায়ী সমিতি।