Find us on

পথ দুর্ঘটনায় প্রয়াত এশিয়াড ব্রোঞ্জজয়ী চিমা
খেলা
শিরোনাম

পাটিয়ালা, ১১ জানুয়ারিঃ গাড়ি দুর্ঘটনায় বুধবার রাতে প্রাণ হারালেন প্রাক্তন কুস্তিগির এবং কোচ সুখচেন সিং চিমা প্রয়াত হলেন। ১৯৭৪ এশিয়ান গেমসে জোড়া সোনা জিতেছিলেন তিনি।

বুধবার রাত ৮ টা নাগাদ নিজের ফার্ম ভারনি কালান গ্রাম থেকে পাটিয়ালার বাড়িতে ফিরছিলেন সুখচেন। পাটিয়ালা-রাজপুরা বাইপাসের ১০ কিমি দূরে শেরমাজরা চক নামে একটি জায়গায় সুখচেনের টয়োটা এটিওস গাড়িকে পিছন থেকে সজোরে ধাক্কা মারে একটি অল্টো গাড়ি। গতি এতটাই বেশি ছিল যে, সুখচেনের গাড়িটি বেশ কয়েকবার পালটি খেয়ে পাশের নয়ানজুলিতে পড়ে যায়। প্রায় এক ঘন্টা পর পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে রক্তাক্ত সুখচেনকে উদ্ধার করে স্থানীয় রাজিন্দর সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেই মাথার চোটে মৃত্যু হয় সুখচেনের। পুলিশ সিআরপিসি তে ১৭৪ ধারায় মামলা দায়ের করেছে।
১৯৭৪ তেহরান এশিয়ান গেমসে জোড়া ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন সুখচেন। তিনি ছিলেন ‘রুস্তম-ই-হিন্দ’ ও ‘ভারত কেশরী’ খেতাব বিজয়ী অলিম্পিয়ান কেশর সিং চিমার ছেলে, যিনি ১৯৫২ অলিম্পিকে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। খেলা ছাড়ার পর কোচ হিসেবেও নাম করেন। নিজের ছেলে এবং পরবিন্দার সিং চিমাকেও শিক্ষা দেন তিনি। প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এপিজে আবদুল কালামের হাত থেকে ‘দ্রোণাচার্য’ খেতাবও পেয়েছিলেন।
তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া ভারতীয় ক্রীড়ামহলে। পাঞ্জাবের পর্যটন মন্ত্রী নভজ্যোত্‍ সিং সিদ্ধু গভীর শোকজ্ঞাপন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *