শনিবার, জানুয়ারি ২১, ২০১৭


Find us on

দক্ষিণবঙ্গ

ফাইনালে এটিকে

১৩ ডিসেম্বরঃ সাইডলাইনে দাঁড়িয়ে বারবার ঘড়ি দেখছিলেন। শেষ বাঁশিটা বাজার পর মাঠে দৌড়। জড়িয়ে ধরলেন বোরহা-প্রীতমদের। ৫৭ মিনিট দশজনে তীব্র লড়াই চালিয়ে মুম্বইকে আটকে রাখা। নরডি, সুনীলদের এক একটা আক্রমণ রক্তচাপ বাড়াচ্ছিল। রেফারির বাঁশিটা বাজতেই ফাইনালের টিকিট পকেটে।

ম্যাচ গোলশূন্য। ফলস্বরূপ রবীন্দ্র সরোবরে প্রথম লেগের সেমিফাইনালে ৩-২ ব্যবধানে জেতার সুবাদে মুম্বইয়ের হার্ডল পেরিয়েনতুন স্বপ্ন দেখা শুরু। ৪২ মিনিটে যখন লালথাম লাল কার্ড দেখে বেরিয়ে যান, দুঃস্বপ্নেও মুম্বই ভাবেনি তারা হারবে। বিরতিতে দলের কর্ণধার রণবীর কাপুরও মনে করিয়ে দেন সেই কথা। গম্ভীর মুখে ভিভিআইপি গ্যালারিতে বসে ছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। দশ সৈনিকের মিলিত লড়াই সেই মুখে হাসি ছড়াল। এনে দিল ২০১৪-র পর ফের ফাইনালে ওটার সুখস্মৃতি।

Read More

স্বচ্ছ ভারত অভিযানের দিশা এবার অভয়ারণ্যগুলিতেও

কলকাতা, ১০ ডিসেম্বরঃ মহানগর, নগর এবং গ্রামের গণ্ডি পেরিয়ে এবার জাতীয় উদ্যান এবং অভয়ারণ্যগুলিতে স্বচ্ছ ভারত অভিযানের দিশা পৌঁছে দিতে উদ্যোগী নরেন্দ্র মোদি সরকার। উদ্যান এবং অভয়ারণ্যগুলি পরিচ্ছন্ন করে তুলতে সম্প্রতি প্রতিটি রাজ্যের বনাধিকারিকদের নির্দেশও দিয়েছে কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ মন্ত্রক। শুধু তাই নয়, উদ্যান এবং অভয়ারণ্যগুলি পরিচ্ছন্ন ও দূষণমুক্ত করতে কী পদক্ষেপ করা হল এবং কতটা উন্নতি হল, তার রিপোর্ট প্রতি চার মাস অন্তর কেন্দ্রকে দিতে হবে বলেও পরিবেশ মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে।

Read More

নোট বাতিলের জেরে ২ মৃতের পরিবারকে চাকরি

কলকাতা, ৯ ডিসেম্বরঃ নোট বাতিল নিয়ে রাজ্যে মর্মান্তিকভাবে মৃত দুই পরিবারের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নোট বাতিলের জেরে দিনমজুরদের টাকা দিতে না পেরে আত্মঘাতী হন কালনার কৃষক শিবু মান্ডি। গত সপ্তাহে টাকার জন্য এটিএমে লাইনদিয়ে অসুস্থ হয়ে মারা যান কোচবিহারে কর্মরত সরকারি কর্মচারি কল্লোল রায়চৌধুরি। দুজের পরিবাররিছু একজনকে চাকরি দেওয়ার কথা এদিন ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। সোশ্যাল মিডিয়ায় এদিন তিনি বলেন, কেন্দ্র বিরোধীদের  নোট বাতিল নিয়ে আলোচনার সুযোগ দিচ্ছে না। এর অর্থ ঝুলি থেকে বেড়াল বেড়িয়ে পড়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ক্যাশলেস লেনদেনের তীব্র কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ক্যাশলেস এখন ফেসলেস হয়ে গেছে।

Read More

সুটিং বিতর্ক বিশ্বভারতীতে

বীরভূম, ১০ ডিসেম্বরঃ ফের বিতর্কের কেন্দ্রে বিশ্বভারতী। এবার সিনেমা বিতর্ক। আশ্রমিকদের দাবি, ‘কবিগুরুর স্মৃতিবিজরিত বিশ্বভারতী একটি হোরিটেজ সাইট। আগে কখনও ক্যাম্পাসের ভেতরে সুটিং হয়নি। এটা শুধু বেআইনি নয়, অপরাধও। এছাড়াও সুটিং হলে উপাসনায় ব্যাঘাতও ঘটতে পারে।’ এই অনুমোদন দেওয়ার জন্যে উপাচার্যের বরখাস্তের দাবি করেন তাঁরা। বিশ্বভারতীর উপাচার্য স্বপন কুমার দত্ত বলেন, ‘বিশ্বভারতীকে ঘিরেই সিনেমার গল্প আবর্তিত। এছাড়া বিশ্বভারতী অনুমতি দেওয়ার বদলে কোনো অর্থ দাবি করছে না। তাই এখানে ভুল কিছু নেই।’

Read More

হুমকির জেরে মামলার শুনানিতে অনুব্রত

বীরভূম, ৯ ডিসেম্বরঃ গত গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে পুলিশ ও বিরোধীদের উদ্দ্যেশ্য হুমকি ও উস্কানিমূলক মন্তব্য করায় নির্বাচন কমিশন মামলা দায়ের করে বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের বিরুদ্ধে। শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতে হাজিরা দিতে তিনি সিউড়ির মুখ্য দায়রা আদালতে উপস্থিত হন। নিজেকে তিনি আদালতের কাছে নির্দোষ বলেও দাবি করেন। আগামী ১৫ ডিসেম্বর এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে বলে ঘোষণা করেন বিচারক।

Read More

ই-কমার্সে সাফল্য তন্তুজের

কলকাতা, ৩ ডিসেম্বরঃ দীর্ঘদিন ধরে লাভের মুখ দেখা সরকারি সংস্থা তন্তুজ ই- কমার্সেও সাফল্য পেয়েছে। ২টি বহুজাতিক সংস্থার সঙ্গে অংশীদারীত্বে তন্তুজ সফলভাবে এই ব্যবসা করছে। সরকারি সূত্রে প্রকাশ, দীর্ঘদিন লোকসানে চলা তন্তুজের ব্যবসা চলতি বছর ইতিমধ্যেই ১২৫ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে। খুব শীঘ্রই মুম্বই ও দিঘায় তন্তুজের বিপনন কেন্দ্র খোলা হবে। বেনারসে তাঁতিদের সঙ্গে যোগাযোগ করে রাজ্যে বেনারসিও তৈরি করছে এই সংস্থা। রাজ্য সরকারের অভিযোগ, শ্রমিক আন্দোলন ও কর্মসংস্কৃতির অভাবে দীর্ঘ ২৫ বছর  লাভের মুখ দেখেনি এই সংস্থা। তাকে ফের লাভজনক করে তোলার নেপথ্যে মুখ্যমন্ত্রীর অবদান রয়েছে বলে দাবি দপ্তরের।

Read More

ফের সেনা নিয়ে তোপ মুখ্যমন্ত্রীর

কলকাতা, ২ ডিসেম্বরঃ বিদ্যাসাগর সেতু সহ রাজ্যে সেনা নামানো ও নোট বাতিল নিয়ে এদিন প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তীব্র বিষোদগার করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়। সেনা মোতায়েনের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার রাতে তিনি নবান্নেই ছিলেন। শুক্রবার রাতে তিনি নবান্ন থেকে প্রস্থানের আগে কেন্দ্রকে তোপ দেগে বলেন, এমন কিংকর্তব্যবিমূঢ়, দিশাহীন কাজ, দাম্ভিকতা তিনি কখনও দেখেননি। সোস্যাল মিডিয়াতেও চা বাগান সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তিনি নোটের অমিল নিয়েও ক্ষোভ ব্যাক্ত করেন। তিনি জানান, তাঁদের আপত্তি থাকা সত্ত্বেও এখনও তিন-চার জায়গায় সেনা আছে। মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, শুধু নবান্নের ক্ষেত্রেই সেনা কর্তৃপক্ষ কলকাতা পুলিশকে জানিয়েছিল, আর কোথাও নয়। সেনা নামানোর প্রতিবাদে ৩০ ঘন্টা পর মুখ্যমন্ত্রী নবান্ন থেকে প্রস্থান করেন।

Read More

স্থায়ী নয়, এক বছরের জন্য চুক্তিতে নিয়োগ রাজ্যে

কলকাতা, ২৭ নভেম্বরঃ স্থায়ী কর্মী নয়, এক বছরের চুক্তিতে কর্মী নিয়োগ হবে, এমন সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে রাজ্য সরকার। তবে বেকার যুবক-যুবতি নয়, রাজ্য সরকারের অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদেরই চুক্তির ভিত্তিতে পুনরায় নিয়োগ করা হবে বলে অর্থ দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে। শূন্যপদের সংখ্যা দিনদিন বাড়তে থাকলেও সেই ফাঁকা জায়গা পূরণে আর্থিক সামর্থ নেই সরকারের। তাই এই সিদ্ধান্ত। অর্থ দপ্তরের নোটিশ অনুসারে রাজ্য সরকারের প্রাক্তন কর্মীদেরই শূন্যপদে নিয়োগ করা হবে। তবে তাদের বেতন হবে নির্দিষ্ট। এছাড়া স্থায়ী কর্মীদের মতো চুক্তিভিত্তিকরা সব সুবিধা পাবেন না। অবসরপ্রাপ্ত কর্মীর বয়স ৬৪ বছরের নীচে হলে তবেই পুনরায় চুক্তিভিত্তিতে নিয়োগ করা হবে।

Read More

রিজার্ভ ব্যাংকের নির্দেশিকা থাকা সত্ত্বেও টাকা না মেলায় ক্ষোভ বীরভূমে

সিউড়ি,১৮ নভেম্বরঃ সরকারি ঘোষণা সত্ত্বেও বীরভূমের বিভিন্ন ব্যাংকে বিয়ের কার্ড দেখিয়ে এবং পেট্রোল পাম্পের মেশিনে কার্ড সোয়াইপ করেও মিলছে না টাকা। অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় রিজার্ভ ব্যাংকের নির্দেশিকা বীরভূমের ব্যাংকগুলিতে এসে পৌঁছায়নি বলে অভিযোগ। ব্যাংকের আধিকারিকরা গ্রাহকদের জানান, একটু দেরি হলেও সরকারি নির্দেশিকা নিশ্চয় ব্যাংকে এসে পৌঁছাবে। এদিন সপ্তাহের শেষে বীরভূমের ব্যাংকগুলিতে ছিল উপচে পড়া ভিড়। গতকাল কেন্দ্র সরকার এবং রিজার্ভ ব্যাংকের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয় যে, গ্রাহকরা বিয়ের কার্ড দেখিয়ে সর্বাধিক আড়াই লক্ষ টাকার জন্য আবেদন করতে পারবেন। কিন্তু সেই নির্দেশিকা সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হলেও ব্যাংক এখনও তা কার্যকর করতে পারেনি। সিউড়ি সদর এসবিআই-এর ব্রাঞ্চ ম্যানেজার বলেন, রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নির্দেশিকা এলেই টাকা দেওয়া হবে।

Read More

সিউড়িতে নোট বাতিলের বিরুদ্ধে এসইউসিআই-এর পুলিশের লাঠি চার্জ।

সংবাদ দাতা, সিউড়ি, ১৬, নভেম্বর- বীরভূমের সিউড়িতে কেন্দ্রের নোট বাতিলের বিরুদ্ধে আন্দোলনের নামায় এসইউসিআই-এর কর্মীদের ওপর ব্যাপক লাঠিচা অভিযোগ। যেখানে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বারবার সরব হয়েছেন এবং বিরোধী শক্তিদের এক জোটে আন্দোলনের নামার ডাক দিয়েছেন। সেখানে এদিন সিউড়িতে সেই আন্দোলনে নেমেই সিউড়ি থানার পুলিশের হাতে প্রহৃত হলেন এসইউসিআই-এর কর্মী সমর্থকরা। এদিন এসইউসিআই-এর তরফে জানা গেছে, বুধাবার বেলা ১২টা নাগাদ জেলা এসইউসিআই-এর সিউড়ি শাখার কর্মীরা সিউড়িতে জেলা শাসকের অফিসের সামনে এসে বিক্ষোভ দেখায়। সেখানে সিউড়ির সেই প্রধান সড়ক কিছুক্ষনের জন্য প্রতীকী অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান তারা এবং সেই সঙ্গে প্রধান মন্ত্রীর কুসপুত্তলিকা পোরানো হয়। এই কর্মসূচীর শেষের দিকে হঠাত করে সিউড়ি থানার আইসি সমীর কোপ্তি নিজেই হাতে লাঠি তুলে নিয়ে বেধড়ক পেটাতে শুরু করেন এসইউসিআই-এর কর্মীদের। ঘটনায় দুই এসইউসিআই কর্মী আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ দলের। কিন্তু হঠাত করে কি এমন হল যে সিউড়ি থানার আইসি তাদের ওপর লাঠি চার্জ করলেন সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কারন যখন আন্দোলন চলছিল তখন প্রথমেই কেন আন্দোলনকারিদের নিষেধ করেনি পুলিশ? আহত এসইউসিআই-এর কর্মী কার্তিক হাজরা জানিয়েছেন, “আমাদের আন্দোলন পূর্ব নির্ধারিত ছিল। ১৪ তারিখ থেকে ১৭ তারিখ অবধি সারা বাংলা জুরেই আমাদের এই আন্দোলন হবে। আমাদের শান্তিপূর্ন আন্দোলনে পুলিশ বিনা কারনে লাঠিচার্জ করেছে। আমরা এর প্রতিবাদে ফের আন্দোলনে নামবো।”

Read More